বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ০৬:৫৩ পূর্বাহ্ন

ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া এসএসসি পরীক্ষার রুটিনটি ‘ভুয়া’

নিজস্ব প্রতিবেদক
আপডেট : রবিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০২৩
ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া এসএসসি পরীক্ষার রুটিনটি ‘ভুয়া’

নিজস্ব প্রতিবেদক : 

আগামী বছরের (২০২৪ সাল) এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার সম্ভাব্য সময় আগেই ঘোষণা করেছে শিক্ষা বোর্ডগুলো। এর মধ্যে এসএসসি পরীক্ষা হবে আগামী বছরের ফেব্রুয়ারির দ্বিতীয় সপ্তাহে এবং এইচএসসি পরীক্ষা হবে জুনের দ্বিতীয় সপ্তাহে। তবে কোনো সময়সূচি ঘোষণা করেনি শিক্ষা বোর্ডগুলো। কিন্তু এর মধ্যেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক ও বিভিন্ন অনলাইন মাধ্যমে এসএসসি পরীক্ষা ২০২৪-এর সময়সূচি প্রচার করা হচ্ছে, যা সঠিক নয় বলে জানিয়েছে আন্তশিক্ষা বোর্ড।

ঢাকা, রাজশাহী, যশোর, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম, বরিশাল, সিলেট, দিনাজপুর, ময়মনসিংহ, বাংলাদেশ মাদরাসা ও কারিগরি শিক্ষা বোর্ড আন্তঃশিক্ষা বোর্ড পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক কমিটির পক্ষ থেকে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে একথা জানানো হয়।

রোববার (১০ ডিসেম্বর) আন্তশিক্ষা বোর্ড পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক কমিটির আহ্বায়ক ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক অধ্যাপক মো. আবুল বাশারের সই করা বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ২০২৪ সালের এসএসসি পরীক্ষা ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝিতে শুরু হবে। পরীক্ষার পূর্ণাঙ্গ সময়সূচি এখনো চূড়ান্ত হয়নি। ইতিমধ্যে ফেসবুক ও বিভিন্ন অনলাইনের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া এসএসসি পরীক্ষা ২০২৪-এর সময় সময়সূচি দেখা যাচ্ছে, যা ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের ইস্যু করা বা প্রকাশিত নয়। সময়সূচি চূড়ান্ত হলে সব বোর্ডের ওয়েবসাইটে ও জাতীয় পত্রিকাগুলোর মাধ্যমে জানা যাবে।

এদিকে আগামী বছরের এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের সুবিধার্থে সিলেবাস প্রকাশ করেছে ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ২০২৪ সালের এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা এনসিটিবি প্রণীত ২০২৩ সালের পুনর্বিন্যাসকৃত পাঠ্যসূচি অনুযায়ী অনুষ্ঠিত হবে। ২০২৪ সালের এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা সব বিষয়ে অনুষ্ঠিত হবে। এইচএসসি ও সমমান পর্যায়ে প্রতিটি বিষয় ও পত্রে তিন ঘণ্টা সময়ে পূর্ণ নম্বরে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

ভাইরাল হওয়া ওই ভুয়া রুটিন অনুযায়ী, আগামী ১১ ফেব্রুয়ারি শুরু হওয়া এসএসসি ও সমমান পরীক্ষা শেষ হবে ৫ মার্চ।

এ বিষয়ে আন্তঃশিক্ষা বোর্ডের সমন্বয়ক ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর তপন কুমার সরকার গণমাধ্যমকে বলেন, এসএসসি পরীক্ষা ফেব্রুয়ারি মাসে নিয়ে আসার সিদ্ধান্ত হয়েছে। তবে তারিখ এখনো চূড়ান্ত হয়নি। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে যে রুটিন ছড়িয়েছে, সেটি ফেক (ভুয়া)।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আবহাওয়া