বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৯:৩২ অপরাহ্ন

দুই কিমি দূরে দীপুর লাশ, সঙ্গের দুই তরুণীকে হাসপাতালে মৃত ঘোষণা

নরসিংদী প্রতিনিধি
আপডেট : বুধবার, ২২ জুলাই, ২০২০

পিকআপের সঙ্গে মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে গুরুতর আহত দুই তরুণী রাস্তায় পড়ে আছেন, স্থানীয়দের দেওয়া এমন তথ্যে পাঁচদোনা পুলিশ ফাঁড়ি থেকে একটি টিম দুর্ঘটনাস্থলে যায়।

আর দুর্ঘটনাস্থল থেকে দুই কিলোমিটার দূরে শেখেরচরে এক তরুণের লাশ পড়ে থাকার সংবাদে সেখানে যায় মাধবদী থানা পুলিশ। এই তিন তরুণ-তরুণী একই মোটরসাইকেলের আরোহী ছিলেন। ঘটনাটি ঘটেছে গত সোমবার রাত পৌনে ১১টার দিকে। তখন মুষলধারে বৃষ্টি হচ্ছিল।

নিহত তরুণের নাম দেলোয়ার হোসেন দিপু (২৫)। তিনি শিবপুর উপজেলার খড়িয়া এলাকার আনোয়ার হোসেনের ছেলে। আর আহত দুই তরুণী সদর উপজেলার বাসাইল এলাকার মোহাম্মদ আলীর মেয়ে মনিরা বেগম (২৯) এবং নারায়ণগঞ্জ বন্দরের নবীগঞ্জ এলাকার বিল্লাল হোসেনের মেয়ে রুপা বেগমকে (২৫) নরসিংদী সদর হাসপাতালে নেওয়ার পর চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। তারা তিনজন আত্মীয়; এর মধ্যে মনিরা ও রুপা খালাতো বোন। রুপা থাকতেন মনিরাদের বাড়িতে।

একই দুর্ঘটনায় দিপুর লাশ পৃথক স্থান থেকে উদ্ধারের ঘটনায় পরিবারের লোকজন একে হত্যাকাণ্ড বলে সন্দেহ করছে। যদিও লাশের প্রাথমিক সুরতহালে পুলিশের ধারণা, দুর্ঘটনার পর দিপুর লাশটি কোনোভাবে পিকআপ ভ্যানে আটকে গিয়েছিল।

মাধবদী থানার উপপরিদর্শক (এসআই) তানভীর বলেন, ‘মোটরসাইকেল ও পিকআপের সংঘর্ষে আহত অবস্থায় দুই তরুণী রাস্তায় পড়ে আছেন, স্থানীয়দের দেওয়া এমন সংবাদের ভিত্তিতে পাঁচদোনা পুলিশ ফাঁড়ির একটি টিম দুর্ঘটনাস্থল থেকে দুজনকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে পাঠায়। আর শেখেরচরে এক তরুণের লাশ পড়ে আছে, এমন সংবাদের ভিত্তিতে মাধবদী থেকে আমরা গিয়ে দিপুর লাশ উদ্ধার করে নরসিংদী সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠাই।’

তিনি বলেন, লাশের প্রাথমিক সুরতহালে ধারণা করা হচ্ছে, দুর্ঘটনার পর দিপুর লাশটি কোনোভাবে পিকআপ ভ্যানে আটকে যায়।

তবে নিহত দিপুর চাচাতো ভাই তুহিন বলেন, লাশের সুরতহাল ও ক্ষত দেখে এটিকে দুর্ঘটনা বলে মনে হয় না। দুর্ঘটনা হয়েছে পাঁচদোনায় আর লাশ পাওয়া গেছে শেখেরচরে; বিষয়টি সন্দেহজনক। এটি হত্যাকাণ্ড হতে পারে বলে তারা ধারণা করছেন।
তিনি বলেন, লাশ পিকআপের সঙ্গে আটকে গেলে সেটিতে ঘঁষার অনেক ক্ষত থাকার কথা। এ ছাড়া এত বড় দুর্ঘটনা হলো, অথচ মোটরসাইকেলটি সেভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়নি। সেটি দুর্ঘটনাস্থলে পড়ে ছিল।

নিহত দিপুর মা মরিয়ম বেগম বাদী হয়ে হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানা গেছে। পরিবারের আবেদনের ভিত্তিতে মনিরা ও রুপার লাশ ময়নাতদন্ত ছাড়া হস্তান্তর করা হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আবহাওয়া

%d bloggers like this:
%d bloggers like this: