বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ০৫:০৭ পূর্বাহ্ন

১ জুলাই থেকে নতুন ভাড়ায় চলবে মৈত্রী-মিতালী-বন্ধন এক্সপ্রেস

নিজস্ব প্রতিবেদক
আপডেট : শনিবার, ১৭ জুন, ২০২৩
১ জুলাই থেকে নতুন ভাড়ায় চলবে মৈত্রী-মিতালী-বন্ধন এক্সপ্রেস

নিজস্ব প্রতিবেদক : 

বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে যাত্রীবাহী ট্রেনের নতুন ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে। আগামী ১ জুলাই থেকে নতুন ভাড়ায় চলবে মৈত্রী, মিতালী, বন্ধন এক্সপ্রেস ট্রেন। বর্তমান ভাড়ার চেয়ে বাড়ানো হয়েছে তিনটি ট্রেনের ভাড়া।

গত ৬ জুন বাংলাদেশ রেলওয়ের মহাপরিচালকের কার্যালয়ের উপ-পরিচালক (ইন্টার চেঞ্জ) মো. মিহরাবুর রশিদ খাঁন স্বাক্ষরিত এক অফিস আদেশ অনুযায়ী, ডলারের দামের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে আন্তঃদেশীয় মৈত্রী, বন্ধন ও মিতালী এক্সপ্রেস ট্রেনের নির্ধারিত ভাড়া সমন্বয় করা হয়ে থাকে। সাম্প্রতিক সময়ে ডলারের দাম ও ট্রাভেল ট্যাক্স বাড়ায় মৈত্রী, বন্ধন ও মিতালী এক্সপ্রেসের ভাড়া বাড়ানো হয়েছে।

জানা গেছে, বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যকার রেল যোগাযোগের জন্য মৈত্রী, মিতালী ও বন্ধন এক্সপ্রেস ট্রেনের নতুন ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে। আগামী ১ জুলাই থেকে কার্যকর করা হবে নতুন এ ভাড়ার তালিকা। মৈত্রী, বন্ধন ও মিতালী এক্সপ্রেস আন্তঃদেশীয় যাত্রীবাহী ট্রেনের ভাড়া পুনর্র্নিধারণের সিদ্ধান্ত নেয়।

মৈত্রী এক্সপ্রেস

২০০৮ সালের ১৪ এপ্রিল ঢাকা-কলকাতা রুটে মৈত্রী এক্সপ্রেস চালু হয়। ট্রেনটি সপ্তাহে পাঁচদিন (শুক্র, শনি, রোব, মঙ্গল ও বুধবার) ঢাকা থেকে কলকাতা যায়। আর কলকাতা থেকে ঢাকা আসে সপ্তাহে পাঁচদিন (শুক্র, শনি, সোম, মঙ্গল ও বুধবার)। মৈত্রী এক্সপ্রেসে রেলপথে ঢাকা-কলকাতা এসি সিটের ভাড়া ৪ হাজার ১৯৫ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৪ হাজার ৭৯৫ টাকা করা হয়েছে। এসি চেয়ারের ভাড়া ২ হাজার ৯৬৫ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৩ হাজার ৫৩০ টাকা করা হয়েছে। এক থেকে পাঁচ বছরের শিশুদের জন্য ৫০ শতাংশ ছাড় রয়েছে। এক্ষেত্রে পাসপোর্ট অনুসারে বয়স নির্ধারিত হবে। সিঙ্গেল কেবিনে তিনটি সিট এবং ডাবল কেবিনে ছয়টি সিটের টিকিট দেওয়া হয়।

মিতালী এক্সপ্রেস
২০২১ সালের ২৬ মার্চ বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে ঢাকায় মিতালী এক্সপ্রেস ট্রেনের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এ রেলপথের দূরত্ব ৫৩০ কিলোমিটার। এর মধ্যে ভারত অংশে ৮৪ কিলোমিটার। বাংলাদেশ অংশে ৪৪৬ কিলোমিটার। এ পথের জন্য এসি চেয়ার ভাড়া ৩ হাজার ২১০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৩ হাজার ৭৮৫ টাকা করা হয়েছে। এসি সিট ৪ হাজার ৬৫ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৪ হাজার ১৭৫ টাকা ও এসি বার্থ বা স্লিপার ৫ হাজার ৯১৫ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৬ হাজার ৫৭০ টাকা করা হয়েছে।

বন্ধন এক্সপ্রেস

বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে বন্ধুত্বের প্রতীক হিসেবে ২০১৭ সালের ১৬ নভেম্বর চালু হয় বন্ধন এক্সপ্রেস। এ ট্রেনটি খুলনা-কলকাতা রুটে চলাচল করছে। ট্রেনটিতে এসি সিট ও এসি চেয়ারের ব্যবস্থা রয়েছে। খুলনা-কলকাতার এসি সিটের ভাড়া বাড়িয়ে ২ হাজার ৯০০ টাকা করা হয়েছে। এসি চেয়ারের ভাড়া বাড়িয়ে ২ হাজার ২৬৫ টাকা করা হয়েছে। পাঁচ বছর বয়স পর্যন্ত শিশুদের ভাড়া হবে মূল ভাড়ার ৫০ শতাংশ।

ভ্রমণ, চিকিৎসা ও ব্যবসার কাজে বাংলাদেশ থেকে ভারতে যাতায়াত করে দেশের মানুষ। ট্রেনে ভ্রমণ আরামদায়ক ও সাশ্রয়ী হওয়ায় এই বাহনে যাতায়াত করে হাজারো মানুষ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আবহাওয়া