বৃহস্পতিবার, ০৪ মার্চ ২০২১, ০৯:০৬ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
৯৯৯-এ কল করবেন যেসব বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা এইচ টি ইমামের অবস্থা সংকটাপন্ন ব্যয়বহুল মহাসড়কগুলো টেকসই হচ্ছে না যে কারণে…. আদমদীঘিতে খাল খননে অনিয়ম দুর্নীতি ৫৬.৯৪% গড় অগ্রগতি মেট্রো রেল প্রকল্পে রেলে ১২ হাজার লোক নিয়োগে শিগগিরই বিজ্ঞপ্তি বেলুনের মধ্যে ঢুকে চকলেট সাজে প্রিয়াঙ্কা ড্যাশ-৮ এর ‘আকাশ তরী’এখন ঢাকায় সব খাতে উন্নয়ন সম্ভব হচ্ছে দীর্ঘদিন সরকারে থাকায় সবার জন্য ঘর এবং বিদ্যুত মুজিববর্ষের মধ্যেই পানি নেই নদ-নদীর বুকে! ঢাকা-মাওয়া-ভাঙ্গা এক্সপ্রেসওয়েতে টোল ১ জুলাই থেকে এমপি পাপুলের লক্ষ্মীপুর-২ আসন শূন্য ঘোষণা ৬ ঘণ্টায় ১২ লাখ লাইক সানির যে ছবিতে বলিউড তারকারা প্রিয়াঙ্কাকে ভালো চোখে দেখতেন না! বিএনপি জামায়াত রেল ব্যবস্থাপনাকে ধ্বংস করে দিয়েছে ৪৪ কেজির বাঘাইড় মাছের দাম ৬০ হাজার টাকা! আরেক নবাবের আগমন পতৌদি পরিবারে চলন্ত অবস্থায় ভেঙে পড়ল বিমানের জলন্ত ইঞ্জিন ভাষা শহীদদের স্মরণে লাখো মোমবাতি প্রজ্জ্বলন

সওজের তিন প্রকৌশলী ৩৩ প্রকল্পের পিডির দায়িত্বে

নিজস্ব প্রতিবেদক
আপডেট : বৃহস্পতিবার, ১১ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
সওজের তিন প্রকৌশলী ৩৩ প্রকল্পের পিডির দায়িত্বে
সড়ক ভবন

সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের দুই জোনের দু’জন অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলীর অধীনে রয়েছে ১২টি করে প্রকল্প। আরেক অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলীর অধীনে রয়েছে ৯টি প্রকল্প। সব মিলিয়ে মাত্র তিনজন কর্মকর্তা সওজের ৩৩টি প্রকল্পে পিডি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। এর বাইরে সওজের অন্য সাত জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী সাতজন ৪৫ প্রকল্পে পিডি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। আর সওজের সর্বমোট ২০১টি প্রকল্পের জন্য পিডি রয়েছেন মাত্র ৭৭ জন।

প্রকল্পের প্রাক্কলিত মূল্য ৫০ কোটি টাকা বা তার বেশি হলে একজন পূর্ণকালীন প্রকল্প পরিচালক (পিডি) নিয়োগের নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সম্প্রতি সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগে একজন কর্মকর্তাকে একটি প্রকল্পের পিডি নিয়োগ-সংক্রান্ত বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে জানানো হয়, সওজের জোন পর্যায়ে অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলীরা ৪ থেকে ১২টি প্রকল্পের অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়া তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলীরা দুই বা ততোধিক প্রকল্পের পিডি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। আর অধিকাংশ ক্ষেত্রে নির্বাহী প্রকৌশলীরা একটি প্রকল্পের পিডি হিসেবে অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করছেন।

চলতি অর্থবছর সওজের অধীনে ২০১টি প্রকল্প চলমান আছে। এর মধ্যে বৈদেশিক সহায়তাপুষ্ট ১৬টি প্রকল্পের ১৩টিতে পূর্ণকালীন পিডি নিয়োগ করা হয়েছে। তবে সরকারি অর্থায়নে প্রকল্প বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে জনবল খাতে পৃথক বরাদ্দ থাকে না। তাই একজন কর্মকর্তা একাধিক প্রকল্পে পিডি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

বৈঠকের তথ্যমতে, সওজের ময়মনসিংহ জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী সৈয়দ মইনুল হাসান ১২টি প্রকল্পের পিডি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। তার অধীনে থাকা প্রকল্পগুলোর প্রাক্কলিত ব্যয় ২১৯ কোটি ৬৭ লাখ থেকে ৮৭৪ কোটি আট লাখ টাকা। অর্থাৎ প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী প্রতিটি প্রকল্পের জন্যই পৃথক পিডি নিয়োগ করা দরকার।

একইভাবে খুলনা জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী সৈয়দ আসলাম আলীও ১২টি প্রকল্পের পিডি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। এগুলোর প্রাক্কলিত ব্যয় ১০০ কোটি ৭০ লাখ টাকা থেকে ৭৫৬ কোটি ৮০ লাখ টাকা।

এদিকে ঢাকা জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মো. সবুজ উদ্দিন খানের অধীন প্রকল্পগুলো রয়েছে ৯টি। এগুলোর মধ্যে শুধু একটির প্রাক্কলিত ব্যয় পাঁচ কোটি টাকার কম। বাকিগুলোর প্রাক্কলিত ব্যয় ১৮৩ কোটি ৯০ লাখ টাকা থেকে চার হাজার ১১১ কোটি ৮৬ লাখ টাকা। তবে প্রাক্কলিত ব্যয় বিবেচনায় সবচেয়ে বড় প্রকল্প ঢাকা জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলীর অধীনেই রয়েছে।

এর বাইরে চট্টগ্রাম জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মো. আবদুল ওয়াহিদ সাতটি প্রকল্পের পিডি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন, সিলেট জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী তুষার কান্তি সাহাও সাতটি প্রকল্পের পিডি, কুমিল্লা জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মো. শওকত আলী আটটি প্রকল্পের পিডি, বরিশাল জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী আবু হেনা মোহাম্মদ তারেক ইকবাল ছয়টি প্রকল্পের পিডি, রাজশাহী জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মো. সাদেকুল ইসলাম সাতটি প্রকল্পের পিডি, রংপুর জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মো. মনিরুজ্জামান ছয়টি প্রকল্পের পিডি এবং গোপালগঞ্জ জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী সুশীল কুমার সাহা চারটি প্রকল্পের পিডি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

এদিকে ঢাকা জোনের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মো. আতাউর রহমানের অধীনে রয়েছে চারটি ও কেএম নূ-ই-আলমের অধীন রয়েছে পাঁচটি প্রকল্প। চট্টগ্রাম জোনের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মো. হাফিজুর ৬টি ও মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম ৩টি প্রকল্পের পিডি। ময়মনসিংহ জোনের দুই তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী (একেএম আজাদ রহমান ও মো. জাহাংগীর আলম) পিডি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন ৬ প্রকল্পে।

এছাড়া সিলেট জোনের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী উৎপল সামান্ত ৪টি প্রকল্পের পিডি, খুলনা জোনের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মো. শফিকুল ইসলাম ৪টি ও মোহাম্মদ মাসুদ করিম ২টি প্রকল্পের পিডি, কুমিল্লা জোনের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মো. আব্দুর রহিম ৫টি ও রানা প্রিয় বড়ুয়া ৩টি প্রকল্পের পিডি, গোপালগঞ্জ জোনের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মো. জাহাঙ্গীর আলম ২টি প্রকল্পের পিডি।

একইভাবে বরিশাল জোনের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মিন্টু রঞ্জন দেবনাথ ৪টি প্রকল্পের পিডি, রংপুর জোনের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী আবু এহতেশাল রাশেদ, সুরুজ মিয়া ও মো. রাশেদুল ইসলাম ৩টি করে মোট ৯টি প্রকল্পের পিডি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। তবে শুধু রাজশাহী জোনের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মো. মাসুম সারওয়ার ও সমীরণ রায় একটি করে প্রকল্পের পিডি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

জানতে চাইলে বৈঠকের সভাপতি এবং সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. আব্দুল মালেক বলেন, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের নির্দেশের পরিপ্রেক্ষিতে বৈঠক আহ্বান করা হয়েছিল। সেখানে সওজের বিভিন্ন প্রকল্পের পিডি নিয়োগের চিত্র বিশ্লেষণ করা হয়।

তিনি বলেন, একাধিক প্রকল্পে একজনকে পিডি নিয়োগের পেছনে অনেকগুলো কারণ রয়েছে। সরকারি অর্থায়নকারী প্রকল্পে জনবল বাবদ কোনো ব্যয় থাকে না। আবার এক জোনের প্রকল্পে অন্য জোনের কর্মকর্তা নিয়োগ করা যায় না। তবে ২২ ফেব্রুয়ারির মধ্যে প্রতি প্রকল্পে একজন করে পিডি নিয়োগের নির্দেশনা কার্যকরের অগ্রগতি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে জানাতে হবে। তাই সার্বিক বিষয় বিবেচনা করে সুপারিশ পেশ করা হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আবহাওয়া

%d bloggers like this:
%d bloggers like this: