মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ০৯:১৯ অপরাহ্ন

লখনৌকে বিদায় করে কোয়ালিফায়ারে মুম্বাই

স্পোর্টস ডেস্ক
আপডেট : বৃহস্পতিবার, ২৫ মে, ২০২৩
লখনৌকে বিদায় করে কোয়ালিফায়ারে মুম্বাই

স্পোর্টস ডেস্ক : 

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) এলিমিনেটর ম্যাচে জ্বলে উঠলেন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের তরুণ পেসার আকাশ মাধওয়াল। তার দুর্দান্ত বোলিংয়ে কাবু লখনৌ সুপার জায়ান্টস। মার্কাস স্টইনিস ছাড়া দাঁড়াতে পারেননি দলটির আর কোনো ব্যাটার। ফলে ১৮৩ রানের লক্ষ্যে ব্যাটিংয়ে নেমে মাত্র ১০১ রানেই থেমেছে লোকেশ রাহুলের দল। তাতে ৮১ রানে হেরে আসর থেকে বিদায় নিয়েছে দলটি। এদিকে এই জয়ে দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে গুজরাট টাইটান্সের বিপক্ষে মাঠে নামবে রোহিত শর্মার মুম্বাই।

বুুধবার (২৪ মে) চেন্নাইতে টস জিতে আগে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি মুম্বাইয়ের। স্কোরবোর্ডে ৩৮ রান তুলতেই দুই ওপেনার রোহিত ও ইশান কিশানের উইকেট হারায় দলটি। ১০ বলে ১১ রান আসে রোহিতের ব্যাটে। ইশান করেন ১২ বলে ১৫ রান।

পঞ্চম ওভারে দ্বিতীয় উইকেট হারানোর পরের ৭ ওভার ক্যামেরন গ্রিন এবং সূর্যকুমার যাদবের ব্যাটে এগিয়ে যেতে থাকে মুম্বাই। তাদের অবশ্য অনেক দূর যেতে দেননি নাভিন উল হক। রোহিতের পর এই দুজনের উইকেটও নেন নাভিন।

২০ বলে ৩৩ রান করেন সূর্যকুমার। একই ওভারের শেষ বলে গ্রিন বোল্ড হয়ে ফিরে যান ২৩ বলে ৪১ রানের বিধ্বংসী ইনিংস খেলে। শেষদিকে তিলক ভার্মার ২২ বলে ২৬, টিম ডেভিডের ১৩ বলে ১৩ এবং ইমপ্যাক্ট প্লেয়ার নেহাল ওয়াধেরার ১২ বলে ২৩ রানের ক্যামিওতে লড়াই করার মতো পুঁজি পায় মুম্বাই।

লখনৌর হয়ে ৩৮ রান খরচায় চার উইকেট নেন নাভিন। ৩৪ রান খরচায় তিন উইকেট নেন যশ ঠাকুর।

জয়ের জন্য ১৮৩ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ২ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে লখনৌ। দুই ওপেনার প্রেরক মাঁকড় (৩) এবং কাইল মেয়ার্স (১৮) দলকে চাপে ফেলে দেন। তিন নম্বরে নেমে অধিনায়ক ক্রুণালও রান তোলার গতি বাড়াতে পারলেন না। বরং ১১ বলে ৮ রান করে দলের উপর চাপ আরও বাড়িয়ে দিলেন লখনউ অধিনায়ক। চার নম্বরে নেমে মার্কাস স্টোইনিস ব্যাট হাতে পাল্টা চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দেন রোহিতদের। তিনি করলেন ২৭ বলে ৪০ রান। মারলেন ৫টি চার এবং ১টি ছক্কা। তাতে অবশ্য লাভ তেমন হয়নি। আয়ুষ বাদোনি (১), নিকোলাস পুরানদের (শূন্য) ব্যর্থতা লখনৌয়ের চাপ আরও বাড়িয়ে দেয়। মুম্বাইয়ের তরুণ জোরে বোলার আকাশ। তার বল খেলতেই পারলেন না লখনৌয়ের ব্যাটাররা। ৭৪ রানে লখনৌয়ের ৫ উইকেট পড়ে যাওয়ার পর মুম্বাইয়ের দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে যাওয়া ছিল কার্যত সময়ের অপেক্ষা।

লখনৌয়ের পরের দিকে ব্যাটাররা কেউই ২২ গজে দাঁড়াতে পারলেন না। দীপক হুডা (১৫), কৃষ্ণাপ্পা গৌতম (২), রবি বিষ্ণোই (৩), মহসিন খানরা (শূন্য) মাঠে নামলেন এবং সাজঘরে ফিরে গেলেন। এমন গুরুত্বপূর্ণ নকআউট ম্যাচে কুইন্টন ডিকককে কেন লখনৌ বসিয়ে রাখল, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতেই পারে।

আকাশ মাধওয়াল টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে জীবনের সেরা বোলিং করলেন লখনৌয়ের বিরুদ্ধে। ৫ রান দিয়ে তুলে নিলেন ৫ উইকেট। ৭ রানে ১ উইকেট নিয়েছেন ক্রিস জর্ডন। ২৮ রানে ১ উইকেট পীযূষ চাওলার।

এদিকে দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে ২৬ জুন গুজরাট টাইটান্সের মুখোমুখি হবে মুম্বাই।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আবহাওয়া