বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ০৮:৫৭ অপরাহ্ন

রিয়াল মাদ্রিদ ছাড়লেন বেনজেমা

স্পোর্টস ডেস্ক
আপডেট : রবিবার, ৪ জুন, ২০২৩
রিয়াল মাদ্রিদ ছাড়লেন বেনজেমা

স্পোর্টস ডেস্ক : 

করিম বেনজেমার রিয়াল মাদ্রিদ ছাড়া নিয়ে চলমান ছিল জোর গুঞ্জন। কিন্তু সাবেক ফরাসি স্ট্রাইকার সেসব উড়িয়ে দিয়ে বলেছিলেন, রিয়ালেই থাকছেন তিনি। দুই দিন যেতে না যেতে পাল্টে গেলো তার সেই অবস্থান। আনুষ্ঠানিকভাবে জানা গেলো, শেষ হচ্ছে তার ১৪ বছরের রিয়াল মাদ্রিদ অধ্যায়। বেনজেমার চলে যাওয়ার খবর নিশ্চিত করেছে রিয়াল মাদ্রিদ।

মৌসুমের শেষ ম্যাচ খেলতে রোববার (৪ জুন) মাঠে নামবে রিয়াল মাদ্রিদ। অ্যাথলেটিকো বিলকাওয়ের বিপক্ষে লস ব্লাঙ্কোসদের জার্সিতে দলটির স্ট্রাইকার করিম বেনজেমার ওটাই শেষ ম্যাচ। এক বিবৃতি দিয়ে রিয়াল মাদ্রিদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

রিয়ালের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, আমাদের অধিনায়ক করিম বেনজেমা ক্লাবের খেলোয়াড় হিসেবে উজ্জ্বল এবং অবিস্মরণীয় সময়ের ইতি টানার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। রিয়াল মাদ্রিদ ক্লাবের অন্যতম সেরা কিংবদন্তির প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছে।

‘করিম বেনজেমা ২০০৯ সালে আমাদের ক্লাবে যোগ দেন এবং মাত্র ২১ বছর বয়সেই ক্লাবের ইতিহাসে সোনালী সময়ের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়দের একজনে পরিণত হন। ১৪ বছর ধরে তিনি আমাদের জার্সি পরে ক্লাব রেকর্ড ২৫টি শিরোপা জিতেছেন: পাঁচটি ইউরোপিয়ান কাপ, পাঁচটি ক্লাব বিশ্বকাপ, চারটি উয়েফা সুপার কাপ, চারটি লা লিগার শিরোপা, তিনটি কোপা দেল রে এবং চারটি স্প্যানিশ সুপার কাপ। ‘

‘করিম বেনজেমা বর্তমান ব্যালন ডি’অরজয়ী এবং উয়েফার বর্ষসেরা খেলোয়াড়। তিনি ফিফা ফিফপ্রো একাদশের সদস্য এবং ২০২২ সালের পিচিচি ট্রফিজয়ী। এসব পুরস্কার তিনি হাতে তুলেছেন আমাদের ইতিহাসের সবচেয়ে সফলতম মৌসুমগুলোতে। বিশেষ করে চ্যাম্পিয়নস লিগে, যেখানে আমাদের অধিনায়ক স্মরণীয় পারফরম্যান্স দেখিয়ে রিয়াল মাদ্রিদকে ১৪তম ইউরোপিয়ান শিরোপা জেতানোয় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন। ১৫ গোল করে আসরের সবচেয়ে গোলের কীর্তিও ছিল তার। রিয়ালের জার্সিতে বেনজেমা মোট ৬৪৭ ম্যাচ খেলেছেন, যা ক্লাবের ইতিহাসে পঞ্চম সর্বোচ্চ। ৩৫৩ গোল নিয়ে তিনি রিয়ালের ইতিহাসের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ গোলদাতা। লা লিগা ও ইউরোপিয়ান কাপে তিনি রিয়ালের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ এবং চ্যাম্পিয়নস লিগ এবং লা লিগার ইতিহাসে চতুর্থ সর্বোচ্চ গোলদাতা। রিয়ালে তার ক্যারিয়ার পেশাদারিত্বের অনন্য উদাহরণ এবং তিনি ক্লাবের মানের প্রতিনিধিত্বকারী। বেনজেমা তার ক্যারিয়ারের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়ার অধিকার অর্জন করে নিয়েছে।

‘মাদ্রিদিস্তাস এবং বিশ্বে রিয়ালের সকল সমর্থক বেনজেমার জাদুকরী এবং অভিনব পারফরম্যান্সে মুগ্ধ হয়েছেন, যা তাকে আমাদের ক্লাব এবং বিশ্ব ফুটবলের অন্যতম সেরা কিংবদন্তিতে পরিণত করেছে। রিয়াল মাদ্রিদ সবসময় তার ঘর হিসেবে থাকবে এবং আমরা তাকে ও তার পরিবারকে নতুন অধ্যায়ের শুভকামনা জানাই। আগামী মঙ্গলবার ক্লাব প্রাঙ্গণে তার তাকে আনুষ্ঠানিকভাবে বিদায় জানানো হবে, যেখানে উপস্থিত থাকবেন ক্লাব প্রেসিডেন্ট ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ। ‘

প্রখ্যাত ক্রীড়া সাংবাদিক ফ্যাব্রিজিও রোমানো জানিয়েছেন, রিয়াল ছেড়ে সৌদি আরবের আল-ইত্তিহাদে যাচ্ছেন বেনজেমা। বেনজেমাকে পেতে নাকি সৌদি লিগের চ্যাম্পিয়নরা প্রস্তাব দিয়েছে প্রায় ৪০ কোটি ইউরোর। আগামী সপ্তাহেই আনুষ্ঠানিক চুক্তিও সেরা ফেলবেন ফরাসি ফুটবল সুপারস্টার।
এই ফরোয়ার্ডের রিয়াল ছাড়ার খবর ইতোমধ্যেই নিশ্চিত করেছে ক্লাবটি। আর জনপ্রিয় ক্রীড়া সাংবাদিক ফ্যাবজিও রোমানিও জানিয়েছেন, বেনজেমার নতুন ঠিকানা হচ্ছে সৌদি আরব।

আল-ইত্তিহাদে যোগ দিচ্ছেন এই ফরাসি ফরোয়ার্ড। ক্লাবটির সঙ্গে চুক্তির ব্যাপারে চূড়ান্ত আলোচনার জন্য আগামী সপ্তাহেই সৌদি আরবে যাচ্ছেন বেনজেমা। রোমানিও আরও জানিয়েছেন, সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী সপ্তাহের মধ্যেই আনুষ্ঠানিক ঘোষণা আসবে। সেটার আনুমানিক দিন হতে পারে বুধবার।

এর আগে ‘ফুট মার্কাতো’ বলেছিল, চলতি মৌসুমে সৌদি আরবের প্রো-লিগ চ্যাম্পিয়ন আল-ইত্তিহাদ এই ফরাসি স্ট্রাইকারকে চুক্তির প্রস্তাব দিয়েছে। দুই বছরের চুক্তির প্রস্তাবে ক্লাবটি ৪০০ মিলিয়ন ইউরো বা প্রায় সাড়ে চার হাজার কোটি টাকা বেতন দিতে চেয়েছে।

চলতি জুনেই বেনজেমার সঙ্গে রিয়ালের চুক্তি শেষ হচ্ছে। তবে শেষ হতে যাওয়া মৌসুমেও তিনি লস ব্লাঙ্কোসদের পক্ষে সর্বোচ্চ গোল করেছেন। অনিয়মিত থাকলেও, রিয়ালের হয়ে ৩০টি গোল করেছেন সর্বশেষ ব্যালন ডি অরজয়ী বেনজেমা। ফলে ৩৫ বছর বয়স হলেও, তিনি এখনও ফুরিয়ে যাননি এটাই বুঝিয়ে দিলেন।

ব্যালন ডি’অর জয়ী স্ট্রাইকার লিঁও থেকে স্প্যানিশ ক্লাবটিতে যোগ দেন ২০০৯ সালে। মৌসুম শেষে তিনি ক্লাব ছাড়বেন ফ্রি ট্রান্সফারে। অথচ চুক্তির আরও এক বছর বাকি ছিল তার। কোচ কার্লো আনচেলত্তিও আশা করেছিলেন, আগামী মৌসুম অন্তত থেকে যাবেন তিনি। কিন্তু রিয়াল মাদ্রিদ রবিবার বিবৃতিতে বলে দিয়েছে, ক্লাবের মর্যাদার পাশাপাশি আচরণ আর পেশাদারিত্বের জন্য বেনজেমা সব সময়ই ছিলেন অনুকরণীয় একজন। নিজের ভবিষ্যৎ নির্ধারণে সে ওই অধিকার টুকু আদায় করে নিয়েছে। রিয়াল মাদ্রিদ সব সময়ই তার ঘর হয়ে থাকবে। পরবর্তী পর্যায়ের জন্য বেনজেমার পরিবার ও তার প্রতি রইলো শুভকামনা।

রিয়াল মাদ্রিদ কিংবদন্তি হতে যা প্রয়োজন তার সবই করেছেন তিনি। ৫টি চ্যাম্পিয়নস লিগ ও চারটি লা লিগা জেতা ৩৫ বছর বয়সী সব মিলে রিয়ালে ২৫টি মেজর শিরোপা জিতেছেন। যা ক্লাব রেকর্ড। গত মৌসুমে রিয়ালকে চ্যাম্পিয়নস লিগ জেতাতেও ছিল অবদান। করেছেন ১৫ গোল। মাদ্রিদের হয়ে খেলেছেন ৬৪৭টি ম্যাচ। ক্লাবটির সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলদাতার তালিকাতেও তার অবস্থান দুই নম্বরে (৩৫৩) গোল। তার চেয়ে বেশি গোল শুধু ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর।

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আবহাওয়া