মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ০৩:৩০ পূর্বাহ্ন

মৌলভীবাজারে প্রশাসনের উদ্যোগ ‘স্মার্ট হাট’

কুলাউড়া (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি
আপডেট : শনিবার, ১৮ জুলাই, ২০২০

করোনা মহামারির মাঝে নতুন চ্যালেঞ্জ দেখা দিয়েছে আসন্ন পবিত্র ঈদুল আজহায় কোরবানির পশুর হাট ব্যবস্থাপনা। সংক্রমণ এড়াতে যখনই প্রশাসন জানাল সড়কে বা যত্রতত্র স্থানে হাট বসবে না। এই কথা শোনামাত্র খামারিদের মাথায় হাত। কারণ বছরের কাঙ্ক্ষিত সময়ে যদি ব্যবসা না করতে পারেন তাহলে সারা বছরেই কঠিন সময় কাটাতে হবে তাদের।

দুশ্চিন্তায় সময় পার করছেন প্রান্তিক খামারিরা। কিন্তু তাদের বিষয়টি মাথায় রেখে সাধারণ মানুষের হাটে যাওয়া নিরুৎসাহিত করতে এবং কোনো ধরনের ঝামেলা ছাড়া ঘরে বসেই কোরবানির পশু ক্রয় করার কথা মাথায় রেখে এবং স্বাস্থ্যঝুঁকির কথা বিবেচনা করে ঈদুল আজহা উপলক্ষে মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসন যে উদ্যোগ নিল যার নাম দেওয়া হয়েছে ‘স্মার্ট হাট’।

 

প্রান্তিক খামারিদের অন্যান্য বছরের চেয়ে যানজটমুক্ত বা নিরাপদভাবে বিক্রি করতে পারবেন তেমনিই দালালদের খপ্পর থেকে মুক্তি পাবেন। এ কারণে এ বিষয়ে যেমন খামারিদের আগ্রহ বেড়েছে তেমনি এই উদ্যোগের সাথে ঝুঁকছে তারা। এতে প্রান্তিক খামারি যেমন উপকার পাবে তেমনি তাদের খরচও কমে আসবে।

 

জেলা প্রশাসন সূত্র জানায়, জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ‘স্মার্ট হাট’ নামক অনলাইনভিত্তিক পশুর হাট চালু করা হয়েছে। জেলা প্রাণিসম্পদ অফিস থেকে সারা জেলায় ১০০০ খামারির তালিকা সংগ্রহ করা হয়েছে। তাদের ভেতর প্রায় ১৫০ খামারি বৃহস্পতিবার পর্যন্ত প্রশাসনের সাথে যোগাযোগ করেছেন। খামারিদের নাম, ঠিকানা, মোবাইল নম্বর, গরুর ভিডিও, স্থির ছবি, গরুর দাঁতের সংখ্যা, ওজন, মূল্যসহ বিস্তারিত এই ফেসবুক তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

এখন পর্যন্ত সারা জেলার বিভিন্ন উপজেলা থেকে ৬০টি গরুর ছবি ও ভিডিওসহ অনলাইন পেইজ স্মার্ট হাটে আপলোড করা হয়েছে। আরো ১০০টি গরুর ছবি ও ভিডিও আপলোড করার জন্য প্রস্তুত রয়েছে।

প্রথমদিকে স্মার্ট হাটের সাথে সম্পৃক্ত কর্মকর্তারা খামারিদের সাথে যোগাযোগ করেছিলেন কিন্তু বর্তমানে জেলার সবক’টি উপজেলা থেকে প্রান্তিক খামারিরা স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে যোগাযোগ করছেন।

অন্যদিকে উপজেলাওয়ারী সেগুলোতে ট্যাগ করা হবে এ জন্য প্রত্যেক উপজেলায় ট্যাগ অফিসার দেওয়া হয়েছে ও তাদের মোবাইল নম্বর। এ জন্য খামারিদের কাছ থেকে তথ্য চাওয়া হয়েছে। প্রান্তিক কৃষক অন্তর্ভুক্ত হতে পারেন এ জন্য এটুআই স্বেচ্ছাসেবকদের কাজে লাগানো হয়েছে। যেন সকল পর্যায়ের মানুষ এখানে অংশ নিতে পারে।

 

যেকোনো সমস্যা এড়াতে উপজেলাভিত্তিক হটলাইন চালু করা হয়েছে। জেলার ৭ উপজেলার হটলাইন হলো : মৌলভীবাজার সদর ০১৭৫৮-৫৩৩৮১১, শ্রীমঙ্গল ০১৭৮৮-৪৬৩৮১১, কমলগঞ্জ ০১৭৪০-৭৯৩৮১১, কুলাউড়া ০১৭৩৮-৬২৩৮১১, জুড়ী ০১৭২৮-৭০৩৮১১, রাজনগর- ০১৭৩২-৮০৩৮১১ ও বড়লেখা- ০১৭৪১-৫৬৩৮১১।

জেলা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসান বলেন, জেলায় নিয়মিত পশুর হাটের পাশাপাশি করোনার সংক্রমণরোধে আসন্ন ঈদুল আজহাকে সামনে রেখে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ‘স্মার্ট হাট’ নামক অনলাইনভিত্তিক পশুর হাট চালু করা হয়েছে। একদিকে যেমন ক্রেতাদের জন্য পশু ক্রয় সহজলভ্য হয়েছে, তেমনি হাটে ক্রেতাদের ব্যাপক সমাগম হ্রাস করে করোনা সংক্রমণের ঝুঁকিও কমানো যাবে। বর্তমানে এই অনলাইন কার্যক্রম সমগ্র জেলাজুড়ে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। স্বাস্থ্যঝুঁকি এড়িয়ে সংক্রমণ সম্ভাবনাকে এড়িয়ে আপনি যদি সুস্থ থাকতে চান আসুন আমরা সবাই মিলে স্মার্ট হাটকে উৎসাহিত করি এবং সেখান থেকে পশু ক্রয় করি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আবহাওয়া

%d bloggers like this:
%d bloggers like this: