বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ০৩:০২ পূর্বাহ্ন

মোরেলগঞ্জে ৫০ বছরেও সাঁকোর স্থানে নির্মাণ হয়নি পুল

নিজস্ব প্রতিবেদক
আপডেট : বুধবার, ২৯ মার্চ, ২০২৩
মোরেলগঞ্জে ৫০ বছরেও সাঁকোর স্থানে নির্মাণ হয়নি পুল

নিজস্ব প্রতিবেদক : 

বাগেরহাট মোরেলগঞ্জ উপজেলার হোগলাবুনিয়া ইউনিয়নের পাঠামারা ছোটবাদুরা, সানকিভাঙ্গা গ্রামের মানুষের চলাচলের একমাত্র ভরসা দু’প্রান্তের দুটি সাঁকো। ৫০ বছরেও সাঁকোর স্থানে নির্মাণ হয়নি পুল। ৩ গ্রামের ৬/৭ হাজার মানুষের একমাত্র ভরসা দুটি সাঁকো। স্থানীয়দের দাবি পুল কিংবা কালভার্ট নির্মাণের।

স্বাধীনতার পরবর্তী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান-মেম্বার পদে বিভিন্ন সময়ে ক্ষমতায় এসে প্রতিশ্রুতি দিয়েও কথা রাখতে পারেনি তারা। চরম ক্ষোভ রয়েছে স্থানীয় গ্রামবাসীর। অবশেষে নিজেদের অর্থায়নে সাঁকোটির সংস্কারের কাজ চলছে।

পাঠামারা, ছোটবাদুরা ও সানকিভাঙ্গা খালের সংযোগে এ সাঁকো দুটি প্রতিবছর মেরাতম করা হয় গ্রামবাসীর আর্থিক সহায়তায়। খালের পাশেই রয়েছে সিএস পাঠামারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, শিক্ষার্থীদের সাঁকো পার হয়ে স্কুলে আসতে ভোগান্তি পোহাতে হয়।

ভুক্তভোগী একাধিক গ্রামবাসী বলেন, গত বছর এ সাঁকো পার হতে পড়ে গিয়ে দুর্ঘটনার শিকার হয়েছে দুই শিক্ষার্থী। বৃদ্ধ আলী আহমেদ শেখ অসুস্থ হয়ে পড়লে চিকিৎসকের কাছে নিতে অনেক ভোগান্তি পোহাতে হয়েছে। নিজেদের টাকা খরচ করে কোনমতে ২/৩ বছর পর পর সাঁকোটি সংস্কার করা হয়। চেয়ারম্যান-মেম্বারের কাছে একাধিকবার আবেদন করেও কোনো সুরহা হয়নি।

এ সম্পর্কে হোগলাবুনিয়া ইউপি চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আকরামুজ্জামান বলেন, ছোটবাদুরা পাঠামারা সংযোগ খালে ইতোপূর্বে সাঁকো নির্মাণে ব্যক্তিগতভাবে সহায়তা করেছেন। তবে, ওখানে শহীদ আব্দুল মতিন সড়ক নামে একটি রাস্তা ও কালভার্ট নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে।

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আবহাওয়া