মঙ্গলবার, ১৬ অগাস্ট ২০২২, ০৭:০৬ অপরাহ্ন

মোংলা বন্দরে ভিড়ল রাশিয়ার জাহাজ

রিপোর্টারের নাম
আপডেট : সোমবার, ১ আগস্ট, ২০২২
মোংলা বন্দরে ভিড়ল রাশিয়ার জাহাজ

চলমান রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের মধ্যে রুশ পণ্যবাহী জাহাজ মোংলা বন্দরে এসে ভিড়েছে। সোমবার (১ আগস্ট) বিকেল ৪টায় ‘এম ভি কামিলা’ নামের জাহাজটি বন্দরের ০৬ নং জেটিতে নোঙর করে। রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের ৩৩২৮.২৩৭ মেট্রিক টন মালামাল নিয়ে এসেছে এটি।

বন্দর কর্তৃপক্ষ জানায়, আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শেষে জাহাজ থেকে মালামাল খালাসের পর ভারী যন্ত্রপাতিগুলো নদীপথে এবং হালকা মালামাল সড়কপথে রূপপুর প্রকল্প এলাকায় পাঠানো হবে।

মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার অ্যাডমিরাল মোহাম্মদ মুসা বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের ৩৩২৮ দশমিক ২৩৭ মেট্রিক টন মেশিনারিজ নিয়ে বিকেলে রাশিয়ান পতাকাবাহী জাহাজ মোংলা বন্দরে ভিড়েছে। চলমান যুদ্ধের মধ্যে এ প্রথম কোনো রুশ পণ্যবাহী জাহাজ মোংলা বন্দরে ভিড়ল।

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে সামরিক অভিযান শুরু করে রাশিয়া। এরপর থেকে মোংলা বন্দরে পণ্যবাহী রুশ জাহাজ আগমন বন্ধ ছিল। সেই যুদ্ধ এখনও চলছে।

রিয়ার অ্যাডমিরাল মোহাম্মদ মুসা বলেন, যুদ্ধ রাশিয়ার অভ্যন্তরীণ বিষয়। আমদের দেশে চলমান সব বড় প্রকল্পের মেশিনারিজ বা অত্যাধুনিক যন্ত্রপাতি বিদেশি থেকে আমদানি করা হয়। তাই নিয়ম অনুযায়ী, মোংলা বন্দরে আসছে এসব পণ্য।

তবে চলমান যুদ্ধের কারণে এ কার্যক্রমে কিছুদিন বিরতি ছিল জানিয়ে তিনি বলেন, রাশিয়ার সঙ্গে বাণিজ্যিক সম্পর্ক আমাদের সবসময়ই ভালো। এখন থেকে নিয়মিতভাবে রুশ জাহাজে করে পণ্য আমদানি করা হবে।

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের জন্য মোংলা বন্দরে আমদানি হওয়া মেশিনারিজের শ্রমিক ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান মেসার্স নুরু অ্যান্ড সন্স। প্রতিষ্ঠানটির মালিক এইচ এম দুলাল বলেন, গত ২৮ জুন রাশিয়ার তামারুক বন্দর থেকে এ বিদ্যুৎকেন্দ্রের মালামাল নিয়ে জাহাজটি ছেড়ে আসে। তাতে ১৩ জন নাবিক রয়েছেন। আনুষ্ঠানিকতা শেষে পণ্য খালাস শুরু হবে।

এর আগে সবশেষ ২০২১ সালের ১৮ অক্টোবর রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের মালামাল নিয়ে মোংলা বন্দরে নোঙর করে রাশিয়ান পতাকাবাহী জাহাজ এমভি ফেসকো আলিস।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আবহাওয়া

%d bloggers like this:
%d bloggers like this: