বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ০২:২৩ পূর্বাহ্ন

‘মাসুদ রানা’ হলেন অনন্ত জলিল, সঙ্গে বর্ষা

বিনোদন ডেস্ক
আপডেট : শনিবার, ৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪
‘মাসুদ রানা’ হলেন অনন্ত জলিল, সঙ্গে বর্ষা

বিনোদন ডেস্ক : 

দেশের জনপ্রিয় অভিনেতা অনন্ত জলিল। দেশবিদেশের বিভিন্ন নির্মাতার সঙ্গে কাজ করেছেন। পর্দায় নিজেকে কখনও এজেন্ট তো কখনও ব্যবসায়ী চরিত্রে উপস্থাপন করে মন জয় করেছেন দর্শকের। এবার বড়পর্দায় ‘মাসুদ রানা’ হয়ে আসছেন এই অভিনেতা। সিনেমার নাম ‘অপারেশন চিতা’।

প্রয়াত লেখক কাজী আনোয়ার হোসেনের অমর সৃষ্টি মাসুদ রানা। এ লেখকের অপারেশন চিতা নামের উপন্যাস থেকে এবার নির্মিত হবে অপারেশন চিতা নামের একটি সিনেমা।

জাজ মাল্টিমিডিয়া প্রযোজিত অ্যাকশন-থ্রিলারধর্মী এ সিনেমায় আবারও জুটিবদ্ধ হতে চলেছেন তারকা দম্পতি অনন্ত জলিল ও বর্ষা।

বুধবার (৩১ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় রাজধানীর ঢাকা ক্লাবে ‘চিতা’ সিনেমার মহরত অনুষ্ঠিত হয়েছে। সেখানেই এ সিনেমার নায়ক-নায়িকার নাম ঘোষণা দেওয়া হয়। এ সিনেমার মাধ্যমে প্রথমবার জাজ মাল্টিমিডিয়া প্রযোজিত সিনেমা করতে যাচ্ছেন অনন্ত জলিল ও বর্ষা।

‘মাসুদ রানা’ চরিত্রে কাজ স্বপ্নের মতো ছিল জানিয়ে অনন্ত বলেন, মাসুদ রানা সিরিজে কাজ করা আমার নিজেরও স্বপ্ন ছিল। দেশে যখন থেকে কাজ করি, অনেকেই আমাকে বলত বাংলার জেমস বন্ড। এই যে ‘চিতা’ ছবিতে আমি কাজ করছি, এটা কিন্তু সাংবাদিকরাও জানতেন না। অথচ জাজের ঘোষণার পর থেকে ফেসবুকে অনেকেই কমেন্ট করেছে, বাংলার জেমস বন্ড অনন্ত জলিল। এজন্য আমি নিজেকে ধন্য মনে করি। প্রায় নাইন্টি ফাইভ পারসেন্ট কমেন্ট আমাকে নিয়ে করেছে।

এই নায়ক আরও বলেন, এর আগে মাসুদ রানার গল্পে ‘এমআর-৯ : ডু অর ডাই’ নির্মাণ করেছিল জাজ মাল্টিমিডিয়া। সিনেমাটিতে হলিউড-বলিউডের তারকারা অভিনয় করেছিল। এবার দেশের তারকারাও থাকবে। সিনেমাটি শুরুর আগে আজিজ ভাইয়ের কাছে তিনটি জিনিস চেয়েছিলাম- প্রেম থাকবে, কমেডি থাকবে আর মাসুদ রানার গল্প অ্যাকশন তো থাকবেই। সবকিছু মিলে যাওয়ায় সিনেমাটি করছি। আর নির্মাতা রাজীব বিশ্বাসের নির্মাণে অপারেশন জ্যাকপটে কাজ করছি, তাই মনে হচ্ছে এই সিনেমাটিও মানসম্পন্ন একটি সিনেমা হবে।

অনন্ত জলিলের সঙ্গে এই সিনেমায় থাকছেন তার স্ত্রী চিত্রনায়িকা বর্ষা। তিনি বলেন, ২০১২ সালে ‘খোঁজ দ্যা সার্চ’ সিনেমার মহরতে বুঝতে পারছিলাম না কী বলব? আজও সেই একই অনুভূতি হচ্ছে। সবাই বলছে, চিতা সিনেমার জন্য অনেক কষ্ট করতে হবে আমাকে। যেহেতু জাজ মাল্টিমিডিয়ার সিনেমা, তো ভালো সিনেমাই হবে। ভালো হতেই হবে কারণ, এটা মাসুদ রানার গল্প, যাকে বলা হয় বাংলার জেমস বন্ড। যখন শুনলাম চিতা সিনেমাটি আমি করতে যাচ্ছি তখন নীলক্ষেত থেকে ‘চিতা’ বইটি এনে পড়েছি। পাশাপাশি এই সিরিজের ‘হ্যালো সুহানা’ গল্পটিও আমার ভালো লেগেছে। আশা করব এই সিনেমাটিও আমাকে নিয়ে নির্মাণ করবে।

জাজ মাল্টিমিডিয়ার কর্ণধার আব্দুল আজিজ বলেন, কাজী আনোয়ার হোসেনের মাসুদ রানা আমাদের দেশের সম্পদ। এই সিরিজের গল্প পর্দায় ফুটিয়ে তোলা আমাদের দায়িত্ব। এর আগে আমরা “এম আর নাইন” সিনেমায় সেই কাজটি করে দেখিয়েছি।

এ বছর মোট ছয়টি সিনেমার শুটিং শেষ করবেন বলে জানান আব্দুল আজিজ। এ ছাড়া হলিউডের সঙ্গে যৌথভাবে আরও সাতটি সিনেমার চুক্তি হয়েছে বলেও জানান তিনি।

জানা যায়, জাজের প্রযোজনায় ‘চিতা’ সিনেমাটি পরিচালনা করবেন কলকাতার নির্মাতা রাজীব বিশ্বাস। আসছে মে মাসে এর শুটিং শুরু হবে। শুটিংয়ের জন্য বাংলাদেশ, থাইল্যান্ড, ইন্দোনেশিয়া ও ভিয়েতনামের বিভিন্ন লোকেশনকে নির্বাচন করা হয়েছে। সিনেমায় আরও দেখা যাবে নাদের চৌধুরী, সাঞ্জু জন, মিস্টার রবার্টসহ অনেককেই।

এর আগে কাজী আনোয়ার হোসেনের সৃষ্ট গোয়েন্দা চরিত্র ‘মাসুদ রানা’ সিরিজের ‘ধ্বংস পাহাড়’ অবলম্বনে নির্মিত হয়েছিল বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের যৌথ প্রযোজনায় ‘এমআর-৯: ডু অর ডাই’নামের একটি সিনেমা।

গত বছর ২৫ আগস্ট মুক্তি পাওয়া এ সিনেমায় মাসুদ রানা চরিত্রে এবিএম সুমন অভিনয় করেন। এছাড়াও সিনেমাটিতে হলিউড ও বলিউডের বেশ কয়েকজন খ্যাতিমান তারকা অভিনয় শিল্পী কাজ করেছিলেন। ৮৩ কোটি বাজেটে নির্মিত সিনেমাটি তেমন আলোচনায় আসেনি।

কাজী আনোয়ার হোসেনের ‘মাসুদ রানা’ চরিত্রটি নিয়ে বাংলাদেশে প্রথম সিনেমা হয়েছিল সিরিজের ১১তম বই ‘বিস্মরণ’ অবলম্বনে। পর্দায় মাসুদ রানা হিসেবে অভিনয় করেন সোহেল রানা। সিনেমাটি মুক্তি পায় ১৯৭৪ সালে। এর ৪৯ বছর পর বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের যৌথ প্রযোজনায় গত বছর মুক্তি পায় ‘এম আর নাইন: ডু অর ডাই’। এ সিনেমায় মাসুদ রানা চরিত্রে অভিনয় করেন এ বি এম সুমন। পরিচালনা করেন হলিউডের আসিফ আকবর।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আবহাওয়া