মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১০:৪৮ অপরাহ্ন

মালদ্বীপকে হারিয়ে টিকে রইলো বাংলাদেশ

স্পোর্টস ডেস্ক
আপডেট : রবিবার, ২৫ জুন, ২০২৩
মালদ্বীপকে হারিয়ে টিকে রইলো বাংলাদেশ

স্পোর্টস ডেস্ক : 

মালদ্বীপের বিপক্ষে এক প্রকার বাঁচামরার লড়াই ছিল বাংলাদেশের। সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের টিকে থাকার লড়াইয়ে মালদ্বীপকে হারাতেই হবে বাংলাদেশকে। এমন ম্যাচে মাঠে নেমেই ১৮ মিনিটের মাথায় গোল হজম করে বাংলাদেশ। তবে পিছিয়ে পড়েও হাল ছাড়েনি বাংলাদেশ। প্রথামার্ধের ৪২ মিনিটের মাথায় সমতায় ফেরে বাংলাদেশ। আর দ্বিতীয়ার্ধে ফিরেই ৬৬ মিনিটের মাথায় লিড নেয় বাংলাদেশ। তখনই শেষ নয়। খেলার অন্তিম মুহূর্তে এসে আরেক গোল করে ৩-১ ব্যবধানের জয় নিশ্চিত করে মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশ।

রোববার (২৫ জুন)ব্যাঙ্গালুরুর শ্রী কান্তিরাভা স্টেডিয়ামে বঙ্গবন্ধু সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে ‘বি’ গ্রুপের ম্যাচে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে মাঠে নামে বাংলাদেশ ও মালদ্বীপ।

সাফ ফুটবলে বাংলাদেশের এই ম্যাচটি ছিল বাঁচামরার। শুরু থেকেই দাপট দেখিয়ে খেলতে থাকে জামাল ভূঁইয়ার দল। প্রথমার্ধে ৫৬ ভাগ বল দখলে রেখে ১৩টি শট নেয় বাংলাদেশ, যার ৪টি ছিল লক্ষ্যে। অন্যদিকে ৩ শটের একটিতে গোল পেয়ে যায় মালদ্বীপ।

মালদ্বীপকে উড়িয়ে সেমির আশা বাঁচিয়ে রাখলো বাংলাদেশ

দুর্দান্ত শুরু করা বাংলাদেশের খেলার ধারার বিপরীতে ১৮ মিনিটে এগিয়ে যায় মালদ্বীপ। হাসান হাইসামের পাস এক সতীর্থ টোকা দেওয়ার পর প্রথম ছোঁয়ায় নিয়ন্ত্রণে নিয়ে বাঁকানো শটে জাল খুঁজে নেন হামজা। দারুণ গোছাল আক্রমণে ৪২তম মিনিটে গোলের দেখা পায় বাংলাদেশ। সোহেল রানার ক্রসে তপুর হেড পাস থেকে হেডেই জাল খুঁজে নেন রাকিব। দ্বিতীয়ার্ধে ৬৬ মিনিটের মাথায় তারিক কাজির দুর্দান্ত এক গোলে ২-১ ব্যবধানে লিড নেয় বাংলাদেশ। আর খেলার নির্ধারিত সময়ের শেষ দিকে এসে তৃতীয় গোলের দেখা পায় বাংলাদেশ। শেষ দিকে গোল করেন শেখ মোরসালিন।

ম্যাচের শুরু থেকেই দুর্দান্ত খেলতে থাকে বাংলাদেশ। দুই মিনিটের মাথায় কর্নার পায় বাংলাদেশ। জামালের কর্নার অনেকটা লাফিয়ে ক্লিয়ার করেন মালদ্বীপের এক ডিফেন্ডার। প্রতিপক্ষকে চেপে ধরার ইঙ্গিত মিলে যায় শুরুতেই। একটু পর কর্নার আদায় করে নেয় মালদ্বীপও। হামজার কর্নার হেডে ক্লিয়ার করেন তপু। ৭ম মিনিটে প্রতিপক্ষের পা থেকে বল কেড়ে নিয়ে দ্রুত আক্রমণে ওঠেন মোহাম্মদ সোহেল রানা। থ্রু পাসও বাড়ান। তবে বলে গতি থাকায় রাকিব হোসেন ছুটে গিয়েও নাগাল পাননি। এতেই দারুণ এক সুযোগ হাতছাড়া হয় বাংলাদেশের।

অবিশ্বাস্য প্রত্যাবর্তনে মালদ্বীপকে হারাল বাংলাদেশ

তবে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণে বাংলাদেশ থাকলেও ১৮ মিনিটের মাথায় গোল করে বসে মালদ্বীপ। হাসান হাইসামের পাস এক সতীর্থ টোকা দেওয়ার পর প্রথম ছোঁয়ায় নিয়ন্ত্রণে নিয়ে বাঁকানো শটে জাল খুঁজে নেন হামজা। ঝাঁপিয়ে পড়েও আটকাতে পারেননি আনিসুর রহমান জিকো। পিছিয়ে পড়া বাংলাদেশ ম্যাচে ফিরতে লড়াই শুরু করে। একের পর এক আক্রমণ করলেও গোলের দেখা পাচ্ছিল না।

৩২ মিনিটে বাংলাদেশের তপু বর্মন বক্সের মধ্যে হেডে গোলের সম্ভাবনা তৈরি করেছিলেন। দুই মিনিট পর ফয়সাল আহমেদ ফাহিম খালি জায়গা পেয়ে দুর্বল শটে সুযোগ নষ্ট করেন।

তবে বিরতির ঠিক আগে ভাগ্য ফেরে দাপুটে খেলা বাংলাদেশের। ৪২ মিনিটে সোহেল রানা উঁচু করে বল দেন বক্সের মধ্যে, তপু সেটা হেডেই পাস দেন রাকিবকে। রাকিবও দারুণ এক হেডে বল জালে জড়ান (১-১)। সমতা নিয়ে বিরতিতে যায় দুই দল।

দ্বিতীয়ার্ধেও দাপট ধরে রাখে বাংলাদেশ। শুরুতেই আরেকটি ভালো সুযোগ পেয়েছিল। ৪৬ মিনিটে বিশ্বনাথ ঘোষের হেড বক্সের একটু ওপর দিয়ে চলে যায়।

৫৬ মিনিটে কাউন্টার অ্যাটাকে বল নিয়ে ঢুকে পড়েছিলেন বাংলাদেশের দুই ফুটবলার। এবারও ভালো সুযোগ ছিল। কিন্তু সময়ক্ষেপনে মালদ্বীপের ডিফেন্ডাররা চলে আসেন, শেষ পর্যন্ত বল কেড়ে নেন তারা।

৬২ মিনিটে অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়াকে তুলে নেওয়াসহ তিনটি পরিবর্তন আনেন কোচ। এর পাঁচ মিনিট পরই (৬৭ মিনিটে) এগিয়ে যায় বাংলাদেশ। বক্সের মধ্যে হৃদয় প্রথম চেষ্টায়, তারপর এক পা হয়ে তৃতীয় চেষ্টায় জটলার মধ্য থেকে তারেক কাজী বল জালে জড়ান।

৬৯ মিনিটে বক্সের বাইরে থেকে মোরসালিনের দুর্দান্ত শট গোলরক্ষক কোনোমতে বাইরে বের করে দিয়ে মালদ্বীপকে বাঁচান। ৮১ মিনিটে তারেক কাজী ইনজুরি নিয়ে মাঠ ছাড়েন। এর কিছুক্ষণ পর বল নিয়ে সময় নষ্ট করে হলুদ কার্ড দেখেন ইসা ফয়সাল।

বাঁচা-মরার ম্যাচে মালদ্বীপকে হারিয়ে টিকে রইলো বাংলাদেশ

৮৫ মিনিটে মালদ্বীপের সমতায় ফেরার সুযোগ এসেছিল। তবে বক্সের মধ্যে হামজার হেড ধরে ফেলেন বাংলাদেশ গোলরক্ষক জিকো।

৯০ মিনিটে বিশ্বনাথের বানিয়ে দেওয়া বল বক্সের ডানপাশে পেয়ে একজনকে কাটিয়ে চোখ ধাঁধানো এক গোল করেন মোরসালিন। পরের মিনিটে হামজার জোরালো শট পোস্টে লেগে ফেরত আসলে ম্যাচে আর ফেরা হয়নি মালদ্বীপের। ৩-১ গোলের দাপুটে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশ।

লেবাননের কাছে ২-০ গোলে হেরে সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ শুরু করে বাংলাদেশ। মালদ্বীপের বিপক্ষে রবিবার দ্বিতীয় ম্যাচ তাদের জন্য ছিল অলিখিত ফাইনাল। এই গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে পিছিয়ে পড়েও দারুণ প্রত্যাবর্তনে তিন পয়েন্ট আদায় করলো হাভিয়ের কাবরেরার দল। ৩-১ গোলে মালদ্বীপকে হারিয়ে সেমিফাইনালের আশা বাঁচিয়ে রাখলো বাংলাদেশ।

বাংলাদেশের পরের ম্যাচ ভুটানের সঙ্গে ২৮ জুন। ম্যাচটি জিতলে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করবেন জামাল ভূঁইয়ারা।

এই জয়ে টুর্নামেন্টে সেমির আশা বাঁচিয়ে রেখেছে লাল সবুজ জার্সিধারীরা। এখন ‘বি’ গ্রুপে লেবানন, বাংলাদেশ আর মালদ্বীপ তিন দলেরই ৩ পয়েন্ট করে। বাংলাদেশ আছে দুই নম্বরে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আবহাওয়া