মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ০৯:২৫ অপরাহ্ন

বিএনপি-জামায়াত বাংলাদেশে আবারও নতুন করে ধূম্রজাল বিস্তার করছে: নাছিম

নিজস্ব প্রতিবেদক
আপডেট : বুধবার, ২৪ মে, ২০২৩
বিএনপি-জামায়াত বাংলাদেশে আবারও নতুন করে ধূম্রজাল বিস্তার করছে: নাছিম

নিজস্ব প্রতিবেদক : 

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কৃষিবিদ আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, বিএনপি-জামায়াত বাংলাদেশে আবারও নতুন করে ধূম্রজাল বিস্তার করছে। এরা মানুষ পুড়িয়ে মেরে অগ্নিসন্ত্রাস করেই থেমে থাকেনি। এরা রাজনৈতিকভাবে শেখ হাসিনা সরকারকে মোকাবিলা করতে ব্যর্থ হয়েছে।

বুধবার (২৪ মে) দুপুরে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক আহ্বায়ক মকবুল হোসেনের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে ইনস্টিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্সে এক স্মরণসভায় এসব কথা বলেন বাহাউদ্দিন নাছিম।

তিনি বলেন, জাতির পিতা স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ গড়ার যে রাজনীতি সে রাজনীতি নষ্ট করার জন্য চেষ্টা করছে। তাদের জন্ম হয়েছে খুনের রাজনীতির মাধ্যমে। জাতির পিতা ও তার পরিবারের সদস্যদের হত্যা করার মধ্যদিয়ে বিএনপি-জামায়াতের উত্থান। বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান দেশে খুনের রাজনীতি প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। বঙ্গবন্ধুর খুনিদের বাঁচানোর জন্য ইনডেমনিটি আইন জারি করেছিলেন। তারপরও তারা খুনিদের রক্ষা করতে পারেনি। ২১ বছর পর খুনিদের বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড় করানো হয়েছে। শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে দেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, আমরা সংঘাত চাই না। রক্তের প্রতিশোধ রক্তের বিনিময়ে নিতে চাই না। আমরা চাই না আমাদের মাতৃভূমি ধ্বংস হোক। তাই বলে খুনির দলেরা যদি দেশকে ধ্বংস করতে চায়, দেশের মানুষের রক্ত ঝরাতে চায়, তাহলে আমরা বসে থাকবো না। তাদের উচিত শিক্ষা দেবো। যাতে তারা দেশের মানুষের কোনো ক্ষতি করতে না পারে।

তিনি বলেন, তারা (বিএনপি) বঙ্গবন্ধু কন্যাকে হত্যার হুমকি দেয়। বঙ্গবন্ধু কন্যার ওপর যদি বিন্দুমাত্র আঘাত আসে তাহলে দেশের প্রতিটি মানুষকে ঐক্যবদ্ধ করে তাদের আমরা নিশ্চিহ্ন করবো।

বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার ওপর ২১ বার হামলা হয়েছে উল্লেখ করে বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশে যখন গণতান্ত্রিক অধিকার প্রতিষ্ঠা হয়েছে, ঠিক তখনই সব কিছুকে ধ্বংস করার জন্য বিএনপি-জামায়াতের শত্রুতে পরিণত হয়েছেন শেখ হাসিনা। তাদের মূল উদ্দেশ্য শেখ হাসিনাকে হত্যা করা। শেখ হাসিনাকে হত্যার মাধ্যমে তারা আবারও ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের পর দেশে যে দুঃশাসন কায়েম হয়েছিল ঠিক তেমন করতে চায়। এরা দেশকে অন্ধকার যুগে নিয়ে যেতে চায়। এজন্য তারা প্রকাশ্যে প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার হুমকি দেয়। এটি কোনো মুখ ফসকে বের হওয়া কথা নয়।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ আজ বিশ্ব দরবারে সম্মানিত। বিশ্বের বড় বড় ব্যক্তিরা আজ বাংলাদেশ ও দেশের মানুষকে সম্মান করে। এসব কিছু সম্ভব হয়েছে প্রধানমন্ত্রীর জন্য। শেখ হাসিনার সরকার উন্নয়নের সরকার। এ সরকার উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে বিশ্বে আজ মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে। ২৫ বছর আগের বাংলাদেশের সঙ্গে বর্তমান বাংলাদেশের তুলনা করার কোনো সুযোগ নেই।

আওয়ামী লীগের এ নেতা বলেন, বাংলাদেশ যখন উন্নয়নশীল রাষ্ট্রের মর্যাদা পেতে যাচ্ছে, ঠিক তখন একটি গোষ্ঠী বাংলাদেশকে পেছনে টেনে ধরার চেষ্টা করছে। এরা বাংলাদেশকে পাকিস্তান ও আফগানিস্তানের মতো সাম্প্রদায়িক রাষ্ট্র বানাতে চায়। এরা দেশে সন্ত্রাসীদের রাজত্ব কায়েম করতে চায়। সন্ত্রাস ও বিশৃঙ্খলার মাধ্যমে দেশকে ধ্বংস করতে চায়। লুণ্ঠনের মাধ্যমে দেশের অর্থ বিদেশে পাচার করে। এই অপশক্তি বাংলা ভাইদের মতো জঙ্গিদের পৃষ্ঠপোষকতা করেছিল। তাদের সব কর্মকাণ্ডে এরা সহযোগিতা করেছে।

বিএনপি ধ্বংস ও খুনের রাজনীতিতে ব্যর্থ হয়ে আবার পুরনো চরিত্রে ফিরে এসেছে বলে মন্তব্য করেন আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম।

মকবুল হেসেনকে নিয়ে বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, মকবুল হোসেন ছিলেন বঙ্গবন্ধুর আদর্শের একজন প্রকৃত সৈনিক। তিনি সব সময় মানুষের জন্য নিজেকে বিলিয়ে দিতেন। তিনি ছিলেন আপসহীন। কখনো অন্যায়ের কাছে মাথা নত করেননি। সংসদ সদস্য হিসেবেও ধানমন্ডি তেজগাঁও ও মোহাম্মদপুরের মানুষের কাছে জনপ্রিয় ছিলেন। তিনি তার দায়িত্ব সবসময় সফলতার সঙ্গে পালন করতেন। ছিলেন একজন শিক্ষানুরাগী।

আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি গাজী মেজবাউল হোসেন সাচ্চুর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক আফজালুর রহমান বাবুর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আহসানুল ইসলাম টিটু এমপি।

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আবহাওয়া