শুক্রবার, ২৬ জুলাই ২০২৪, ০১:১৩ পূর্বাহ্ন

বাংলাদেশে যেকোনো ধরনের মার্কিন নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে থাকবে রাশিয়া : রুশ রাষ্ট্রদূত

নিজস্ব প্রতিবেদক
আপডেট : বৃহস্পতিবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০২৩
বাংলাদেশে যেকোনো ধরনের মার্কিন নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে থাকবে রাশিয়া : রুশ রাষ্ট্রদূত

নিজস্ব প্রতিবেদক : 

ঢাকায় নিযুক্ত রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত আলেকজান্ডার ভি মান্টিটস্কি বলেন, জাতিসংঘ ছাড়া অন্য কোনো দেশের নিষেধাজ্ঞা আমলে নেওয়ার কিছু নেই। পশ্চিমা বিশ্ব বাংলাদেশকে অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা দিলে ওই পরিস্থিতি বিবেচনায় ঢাকা-মস্কো আলোচনা করবে। বাংলাদেশে যেকোনো ধরনের মার্কিন নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে থাকবে রাশিয়া।

বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবে স্বাধীনতা সাংবাদিক ফোরাম আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা জানান।

তিনি বলেন, রাশিয়ায় বিরুদ্ধে অন্তত ১৫ হাজার নিষেধাজ্ঞা আছে, আমরা তা আমলে নেই না। বাংলাদেশে যেকোনো ধরনের মার্কিন নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে রাশিয়া থাকবে। এছাড়া বাংলাদেশের বিরুদ্ধে পশ্চিমাদের নিষেধাজ্ঞার মতো যেকোনো বেআইনি পদক্ষেপের বিরুদ্ধেও থাকবে মস্কো।

এক প্রশ্নের উত্তরে রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত বলেন, ইউক্রেন ইস্যুতে পশ্চিমারা সরব থাকলেও ফিলিস্তিন ইস্যুতে তারা ডাবল স্ট্যান্ডার্ড ভূমিকা নিয়েছে। কেননা তারা অভিযোগ করেছিলেন, ইউক্রেনে অনেক মানুষ মারা যাচ্ছে, এটা নিয়ে তারা উদ্বেগ প্রকাশ করেছিলেন। তবে অক্টোবর থেকে ইসরায়েলে ৬ হাজারেরও বেশি মানুষ মারা গেছে। এটা নিয়ে তাদের কোনো উদ্বেগ নেই। তিনি আরও বলেন, ফিলিস্তিন ইস্যুতে রাশিয়া ও বাংলাদেশের পজিশন একই।

রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত আলেকজান্ডার ভি মান্টিটস্কি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-২ নিয়ে রাশিয়ার প্রস্তাব বাংলাদেশের টেবিলে, কার সঙ্গে করবে সেটার সিদ্ধান্ত নেবে বাংলাদেশ সরকার।

রাষ্ট্রদূত বলেন, গাজায় যখন মানুষ মারা যায় তখন পশ্চিমারা কিছু বলেন না; অথচ ইউক্রেনে কিছু হলে এখানে তারা পত্রিকায় আর্টিকেল প্রকাশ করে। এটা দ্বিচারিতা ছাড়া কিছুই না।

এর আগে আমেরিকা বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করছে বলে মস্কো অভিযোগ করে। তবে এই অভিযোগ নাকচ করে দিয়েছে ওয়াশিংটন। গত বুধবার এক নিয়মিত ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের এ সংক্রান্ত প্রশ্নের জবাব দেন দেশটির জাতীয় নিরাপত্তা কাউন্সিলের (এনএসসি) স্ট্র্যাটেজিক কমিউনিকেশনের পরিচালক অ্যাডমিরাল জন কিরবি।

কিরবি বলেন, ‘বাংলাদেশের জনগণের মতোই আমেরিকাও বাংলাদেশে একটি অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন চায়। আর এ নিয়েই রাষ্ট্রদূত পিটার হাস ও ঢাকার দূতাবাস কাজ করছে।’

গত ২৩ নভেম্বর মস্কোতে এক ব্রিফিংয়ে রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মারিয়া জাখারোভা অভিযোগ করেন, ঢাকায় সরকারবিরোধী সমাবেশে বিরোধীদলকে ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত পিটার হাস সহায়তা করেছেন।

মারিয়া জাখারোভা বলেন, ‘অক্টোবরের শেষে বাংলাদেশে মার্কিন রাষ্ট্রদূত পিটার হাস সরকারবিরোধী সমাবেশ আয়োজনের পরিকল্পনা নিয়ে আলোচনা করতে স্থানীয় বিরোধী দলের একজন সদস্যের সঙ্গে দেখা করেন। এই ধরনের কাজ অভ্যন্তরীণ বিষয়ে স্থূল হস্তক্ষেপের চেয়ে কম কিছু নয়।’

রাশিয়ার তোলা এ অভিযোগ অস্বীকার করে জন কিরবি বলেন ‘বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপের অভিযোগ ভিত্তিহীন। এটি রাশিয়ার অপপ্রচার। আমরা বাংলাদেশে একটি অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন চাই। আমাদের রাষ্ট্রদূত সে লক্ষ্যেই কাজ করছেন। বাংলাদেশে গণতন্ত্রের জন্য সরকার, বিরোধীদল, সিভিল সোসাইটি সবাইকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে।’

অনুষ্ঠানে জাতীয় প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শ্যামল দত্ত বলেন, ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে রাশিয়া যে অবদান রেখেছিলো, সেই অবদান কোনোভাবেই পরিশোধ করা যাবে না। বর্তমান ভূরাজনীতিতে আমাদের পক্ষে রাশিয়াকে প্রয়োজন।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক খায়রুল আলম। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন বাংলা ট্রিবিউনের কূটনৈতিক রিপোর্টার শেখ শাহরিয়ার জামান।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আবহাওয়া