বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ০৮:১৯ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
দেশ ও জনগণের কল্যাণে কাজ করুন: বৌদ্ধ নেতাদের রাষ্ট্রপতি সাংবাদিকরা সহায়তা করলে আদালতে মামলা কমবে : প্রধান বিচারপতি গণতন্ত্রের জন্য যে দেশ স্বাধীন হয়েছে, সে দেশে এখন আর গণতন্ত্র নেই : শামসুজ্জামান দুদু লু এলেন, ভাবলাম সম্পর্ক ভালো করতে চায় কিন্তু নিশিরাতে স্যাংশন দিলো: কাদের ১ মিনিটের ‘ঝড়’ তুললেন মাহি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচের আম্পায়ার বাংলাদেশি সৈকত অবাধ্য পর্যটক সামলাতে দেওয়াল তুলছে জাপান হিমালয়সহ পাহাড়-পর্বত রক্ষায় ঐক্যবদ্ধ হতে হবে: পরিবেশমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুত স্মার্ট বাংলাদেশ গঠনে কারিগরি শিক্ষার বিকল্প নেই : স্পিকার নির্বাচনে জিতে দুধ দিয়ে গোসল করলেন চেয়ারম্যান!

‘পাত্র চাই’ বিজ্ঞাপন দিয়ে ৩০ কোটি টাকা লোপাট

কূটনৈতিক প্রতিনিধি
আপডেট : শুক্রবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০
‘পাত্র চাই’ বিজ্ঞাপন দিয়ে ৩০ কোটি টাকা লোপাট
গ্রেফতারের পর সাদিয়া

কানাডার সিটিজেন ডিভোর্সি ও সন্তানহীন নারীর জন্য পাত্র চাই’, সংবাদপত্রে এমন চটকদার বিজ্ঞাপন দিয়ে ৩০ কোটিরও বেশি টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন তিনি। ১১ বছর ধরে এ প্রতারণার ব্যবসা চালিয়ে এলেও এতদিন ছিলেন ধরাছোঁয়ার বাইরে। শেষ পর্যন্ত এক ভুক্তভোগি মামলা করেন গুলশান থানায়।

সেই মামলায় গ্রেফতার হন সাদিয়া জান্নাত ওরফে জান্নাতুল ফেরদৌসের (৩৮)। পুলিশ তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আবেদন করলে দুই দিনের রিমান্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত।

শুক্রবার ঢাকা মহানগর হাকিম মাসুদ-উর-রহমান শুনানি শেষে জামিনের আবেদন খারিজ করে রিমান্ডের আদেশ দেন।

এর আগে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সিআইডির পরিদর্শক শরীফুল ইসলাম শরীফ আসামিকে আদালতে হাজির করে। পরে মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন।

আরও পড়ুন : বরগুনায় রিফাত হত্যা মামলার ১০ আসামির রায় ৩০ সেপ্টেম্বর

আসামিপক্ষে অ্যাডভোকেট জুলহাস উদ্দিন আহম্মেদ সবুজ রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিনের আবেদন করেন। বাদীপক্ষের আইনজীবী তারিকুল ইসলাম জামিনের বিরোধীতা করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত জামিন খারিজ করে সাদিয়া জান্নাতের দুই দিনের রিমান্ডের আদেশ দেন।

 

গত ১১ বছর ধরে পত্রিকায় এমন বিজ্ঞাপন দিয়ে প্রতারণা করে আসছিলেন সাদিয়া জান্নাত। নাজির উদ্দিন নামে এক ভূক্তভোগী গত ১৭ সেপ্টেম্বর গুলশান থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পর অভিযোগের ভিত্তিতে গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজধানীর গুলশান এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে সিআইডি।

এ সময় তার কাছ থেকে ভুক্তভোগীদের অনেক পাসপোর্ট, ১০টি মোবাইল ফোন, ৩টি মেমোরি কার্ড, ৭টি সিল, অসংখ্য সিম ও প্রতারণার মাধ্যমে আত্মসাৎ করা টাকার একটি হিসাব বই উদ্ধার করা হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আবহাওয়া