বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ০৩:৩৫ পূর্বাহ্ন

দেশের জনগণ আর অন্ধকারে ফিরে যেতে চায় না : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

নোয়াখালী জেলা প্রতিনিধি
আপডেট : রবিবার, ৮ অক্টোবর, ২০২৩
দেশের জনগণ আর অন্ধকারে ফিরে যেতে চায় না : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

নোয়াখালী জেলা প্রতিনিধি : 

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, বিএনপি যতই আস্ফালন করুক, এ নির্বাচন কমিশনের অধীনেই যথাসময়ে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। দেশের জনগণ আর অন্ধকারে ফিরে যেতে চায় না। কে এল, কে গেল, সেটা মুখ্য বিষয় না। এ দেশে সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন হবে। পুলিশ বাহিনী তফসিল ঘোষণার পর থেকে কমিশনের অধীনে থেকে দায়িত্ব পালন করবে।

রোববার (৮ অক্টোবর) বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে নোয়াখালীর চাটখিল থানার ব্যারাক ও কনফারেন্স কক্ষ উদ্ভোধন শেষে প্রেস ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপিঘোষিত আন্দোলন কর্মসূচি নিয়ে সরকার ভীত নয় উল্লেখ করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তারা ৯০ দিন টানা জ্বালাও-পোড়াও করে দেশকে অন্ধকারে ঠেলে দিয়েছিল। এখন জনগণ আর অন্ধকার সময়ে ফিরে যেতে চায় না। দেশে তত্ত্বাবধায়ক সরকার আর ফিরে আসবে না। সংবিধান অনুযায়ী চলবে দেশ।

তিনি বলেন, এদেশের মানুষ আলোকিত বাংলাদেশ দেখতে চায়। এদেশের জনগণ সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ প্রত্যাখ্যান করেছে। যারা সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের জন্য দেশকে অস্থিতিশীল করতে চেয়েছে, বাংলাদেশকে অচল করার জন্য প্রচেষ্টা চালিয়েছে, জনগণ তাদের থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বিএনপিকে ইঙ্গিত করে বলেন, আমরা মনে করি, জনগণ তাদের সঙ্গে নেই। জনগণ যাদের সঙ্গে নেই, তারা যতই আস্ফালন দেখাক, তাতে কিছুই হবে না। কারণ জনগণের শক্তিই আসল শক্তি। দেশে একটি সংবিধান রয়েছে। দেশের সংবিধান অনুযায়ী যা হবে, তাই আমরা করব। দেশে একটা নির্বাচন কমিশন আছে, সে নির্বাচন কমিশন ভোটের সিডিউল ঘোষণা করবে। তখন সশস্ত্র বাহিনীগুলো নির্বাচন কমিশনের অধীনে চলে যাবে। নির্বাচন কমিশন তাদের যেভাবে পরিচালনা করবে, তারা সেভাবেই পরিচালিত হবে।

মন্ত্রী আরও বলেন, দেশে একটা সুষ্ঠু নির্বাচন হবে, এটাই আমরা আশা করি। সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

আপনারা তত্ত্বাবধায়ক সরকারের কথা বলেন, আপনারা কি ইয়াজ উদ্দিনের কথা ভুলে গেছেন- প্রশ্ন করে তিনি বলেন, আপনারা কি দেড় কোটি ভুয়া ভোটারের কথা ভুলে গেছেন? এ ভুয়া ভোটারদের বিরুদ্ধে শেখ হাসিনা যে আন্দোলন করেছিলেন, স্বচ্ছ ব্যালট পেপারের মাধ্যমে দেশে যে ভোট হচ্ছে, তা ওই আন্দোলনেরই ফসল। এ প্রশাসনের অধীনেই নির্বাচন কমিশনের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন হয়ে আসছে। আমরা মনে করি, এ নির্বাচন কমিশন একটি সুষ্ঠু নির্বাচন উপহার দেবে।

পুলিশ বাহিনী প্রসঙ্গে তিনি বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন বাস্তবায়নে কাজ করছে পুলিশ। বিগত ১০ বছরে পুলিশ বাহিনীতে অনেক পরিবর্তন হয়েছে। জনগণের জানমালের নিরাপত্তায় সচেষ্ট রয়েছে এ বাহিনী।

আসাদুজ্জামান খান বলেন, ১৫ বছর আগে আপনারা যে পুলিশ দেখেছেন বর্তমান পুলিশের সঙ্গে তার পার্থক্য আপনারা নিজেরাই দেখছেন। বর্তমান পুলিশ জনবান্ধব পুলিশ-বঙ্গবন্ধুর পুলিশ। এমন পুলিশই বঙ্গবন্ধু চেয়েছিলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা ১৯৭৫ সালে বলেছিলেন, পুলিশ যেন জনগণের পুলিশ হয়, ঔপনিবেশিক শাসকের পুলিশ নয়। আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পুলিশ বাহিনীর প্রতি সর্বাধিক অ্যাটেনশন দিয়েছেন। তিনি পুলিশের জন্য কাজ করছেন। সর্বাধুনিক প্রশিক্ষণের জন্য যা কিছুর প্রয়োজন সব কিছুর ব্যবস্থা করেছেন।

এসময় নোয়াখালী-১ (চাটখিল-সোনাইমুড়ী) আসনের সংসদ সদস্য এইচএম ইব্রাহীম, চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি নুরে আলম মিনা, নোয়াখালী জেলা প্রশাসক দেওয়ান মাহবুবুর রহমান, পুলিশ সুপার শহীদুল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যক্ষ খায়রুল আনম চৌধুরী সেলিম, সাধারণ সম্পাদক ও নোয়াখালী পৌরসভার মেয়র সহিদ উল্যাহ খান সোহেল, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বিজয়া সেন উপস্থিত ছিলেন।

সোনাইমুড়ী কলেজ মাঠে স্থানীয় আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির ভাষণ দেওয়ার কথা রয়েছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আবহাওয়া