শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৭:০৫ পূর্বাহ্ন

দেশের একমাত্র বিরোধী দল তৃণমূল বিএনপি: তৈমূর

নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি
আপডেট : সোমবার, ১৮ ডিসেম্বর, ২০২৩
দেশের একমাত্র বিরোধী দল তৃণমূল বিএনপি: তৈমূর

নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি : 

তৃণমূল বিএনপির মহাসচিব ও নারায়ণগঞ্জ-১ (রূপগঞ্জ) আসনের প্রার্থী অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকার বলেছেন, দেশের একমাত্র বিরোধী দল হচ্ছে তৃণমূল বিএনপি। জাতীয় পার্টি অনেক রঙ-ঢংয়ের পর সরকারি দলের অনুকম্পা নিয়ে নির্বাচন করছে। ১৪ দল আগে থেকেই সরকারি দলের শরিক। বর্তমানে তৃণমূল বিএনপি ১৪২ জন প্রার্থী নিয়ে বিভিন্ন আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে।

সোমবার (১৮ ডিসেম্বর) সকালে নারায়ণগঞ্জ জেলা নির্বাচন অফিসে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রতীক বরাদ্দের পরে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, জনগণ যদি মনে করেন সংসদে একটা শক্তিশালী বিরোধী দল থাকার দরকার তাহলে সাধারণ মানুষ অবশ্যই আমাদের ভোট দিবেন। আমরাই শুধু নিজের পায়ে দাঁড়িয়ে নির্বাচন করবো, কারো অনুগত হয়ে নয়।

তিনি আরও বলেন, এবার যদি ২০১৪ সাল এবং ২০১৮ সালের মতো নির্বাচন হয় তাহলে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি রক্ষা হবে না। আমি সব সময় জনগণের সঙ্গে ছিলাম, জনগণের জন্য কাজ করেছি। রূপগঞ্জের সব জনগণ আমাকে ভাই বলেন, স্যার বলেন না। রূপগঞ্জের এক হাজার লোককে চাকরি দিয়ে আমি ২৬ মাস জেল খাটছি। কেউ আমাকে এক কাপ চা খাওয়াতে পারেনি।

তৈমূর বলেন, দেশের কোনো মানুষ দেখাতে পারবে না খন্দকার পরিবারের কেউ মাদক ব্যবসার সঙ্গে জড়িত কিংবা কেউ পরিবারতন্ত্র কায়েম করেছেন। আমি একা লড়াই করে আজ এ জায়গায় এসেছি। ক্ষমতা দেওয়ার একমাত্র মালিক আল্লাহ। আল্লাহ চাইলে সবকিছু হবে।

ভোটারদের উদ্দেশ্যে তৈমূর বলেন, আমি জনগণকে বলবো, আপনারা নির্বাচনের দিন ভোটকেন্দ্রে গিয়ে ভোট দিন। আপনারা ভোট দেওয়ার প্রস্তুতি নিন। যেখানে ব্যত্যয় ঘটবে, আপনার তার ভিডিও নিন। তা সোশ্যাল মিডিয়ায় দিন। এতে করে প্রধানমন্ত্রীর নিকট ভিডিও পৌঁছাবে, পুরো বিশ্ব তা জানবে। আমি জনগণের জন্যে কাজ করেছি। রূপগঞ্জবাসীর সঙ্গে আমার ভালো সম্পর্ক। আমার মায়ের কবর, দাদার কবর রূপগঞ্জে। রূপগঞ্জে সহস্র লোকের কর্মসংস্থান করে আমি ২৬ মাস জেল খেটেছি। রূপগঞ্জে জমি দখলের বিরুদ্ধে আমি একাই লড়ছি। রূপগঞ্জের মসজিদ, মন্দির, কবরস্থান, শ্মশানে আমার ছোঁয়া আছে। রূপগঞ্জবাসী এসব মনে রেখেছে।

তিনি বলেন, আমি দুনিয়ায় যখন ভূমিষ্ঠ হয়েছি, তখন থেকে একাই ছিলাম। বাবা বিট্রিশের বড় কর্মকর্তা ছিলেন বলে লন্ডনে পড়াশোনা করেছি। আমি বাংলাদেশের সর্বোচ্চ কয়েকটি ডিগ্রি অর্জন করতে পেরেছি। তবুও আমি আমার বন্ধু মহল থেকে সরে রিকশা ইউনিয়নের প্রেসিডেন্ট, ঠেলাগাড়ি ইউনিয়নের প্রেসিডেন্ট, হকার ইউনিয়নের প্রেসিডেন্ট হয়েছি। আল্লাহর ওপর ভরসা করে আমি নির্বাচনের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। একমাত্র আল্লাহর সহযোগিতায় আমার ভরসা আছে।

এরআগে নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মাহমুদুল হক প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ দেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আবহাওয়া