বুধবার, ১৮ মে ২০২২, ১০:৫৬ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
হাতিরঝিলে এ কেমন বাইকড্রাইভ (ভিডিও) আমিরাতগামীদের বিমানবন্দরে আর করোনা পরীক্ষা করতে হবে না তথ্যমন্ত্রী যখন গাড়িচালক ইকোপার্কের রোলার কোস্টার থেকে পড়ে স্কুলছাত্রের মৃত্যু শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে ফেরি ও লঞ্চ চলাচল বন্ধ ঈদের নামাজ আদায়ে বায়তুল মোকাররমে মুসল্লিদের ঢল ঈদযাত্রায় সিডিউল মেনে চলছে ট্রেন নাড়ির টানে ঢাকা ছাড়ছে মানুষ বায়তুল মোকাররমে ঈদ জামাতের সময়সূচি ২০২৩ সাল থেকে হবে না প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা একজন দায়িত্বশীল পুরুষ মানুষ বেশি দামি : তিশা আন্তর্জাতিক মান মেনেই নির্মাণ হয়েছে মেট্রোরেল ৬ বিভাগে বজ্রসহ বৃষ্টির পূর্বাভাস দুদিন পর খুলেছে নিউমার্কেট ইঞ্জিনের ঢাকনা ছাড়াই উড়ল বিমান পর্যটকদের জন্য সুখবর দিল মালয়েশিয়া ট্রেন ও স্টেশন এলাকায় ধূমপান নিষিদ্ধ সারাদেশে চলছে ৫ হাজার সেতুর কাজ বগুড়ায় ভোট গণনার সময় হামলা: বিজিবির গুলিতে নিহত ৪ ওমিক্রনে প্রথম মৃত্যু যুক্তরাজ্যে

তথ্যমন্ত্রী যখন গাড়িচালক

নিজস্ব প্রতিবেদক
আপডেট : বুধবার, ৪ মে, ২০২২
সংগৃহীত ছবি

‘চাঁদের গাড়ি’ নামে পরিচিত ছাদহীন গাড়ি চালিয়ে নিজ গ্রাম সুখবিলাস ও নির্বাচনী এলাকায় সর্বসাধারণের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেছেন তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ।

ঈদুল ফিতরের দিন মঙ্গলবার বিকেলে রাঙ্গুনিয়া উপজেলায় হাছান মাহমুদ এলাকাবাসীর সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করতে বের হন। এ সময় উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ ইউনুছ তার চাঁদের গাড়ি নিয়ে উপস্থিত হলে মন্ত্রী নিজেই চালকের আসনে বসেন। নেতাকর্মীদের সঙ্গে করে তিনি মেঠোপথ ধরে পদুয়া ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে যান ও ধর্ম-বর্ণ-নির্বিশেষে সব সম্প্রদায়ের মানুষের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন, তাদের খোঁজখবর নেন।

এলাকা ভ্রমণের শেষদিকে মন্ত্রীর সহধর্মিণী নুরান ফাতিমা ও পরিবারের অন্য সদস্যরাও যোগ দিলে দলীয় নেতাকর্মী ও স্থানীয়রা আরো উচ্ছ্বসিত হয়ে ওঠেন। এ সময় সুখবিলাস গ্রামের হাটের একটি চায়ের দোকানে তাদের নিয়ে চা পান করেন তথ্যমন্ত্রী।

রাঙ্গুনিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আবু জাফর, মন্ত্রীর বাল্যবন্ধু অনুপম বড়ুয়া, তাতু বড়ুয়া, রাঙ্গুনিয়া উপজেলা যুবলীগের সভাপতি শামসুদ্দোহা সিকদার আরজুসহ এলাকার মানুষ এ সময় মন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন।

সুখবিলাস গ্রামের রফিকুল আলম বলেন, রাষ্ট্রের একজন মন্ত্রী হয়েও ড. হাছান মাহমুদ সব সময় এলাকাবাসীর খোঁজখবর রাখেন। প্রতি ঈদে গ্রামে এসে যেভাবে সব সম্প্রদায়ের মানুষের সঙ্গে মিশে যান, সেটা যেমন এক অনন্য দৃষ্টান্ত, তেমনি আনন্দের।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আবহাওয়া

%d bloggers like this:
%d bloggers like this: