বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০:০৫ অপরাহ্ন

জামালপুরে বন্যায় ভেঙে গেল ব্রিজ দুর্ভোগে আড়াই লাখ মানুষ

নিজস্ব প্রতিবেদক
আপডেট : শুক্রবার, ২৪ জুলাই, ২০২০

জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলার কামরাবাদ ইউনিয়নের শুয়াকৈর গ্রামের বন্যার পানির প্রবল স্রোতে ভেঙে গেছে ব্রিজ। এতে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে ২৫টি গ্রামের আড়াই লাখ মানুষের।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে , ২০০৬ সালে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের (এলজিইডি) অর্থায়নে তিন কোটি টাকার ব্যয়ে উপজেলার শুয়াকৈর গ্রামের ঝিনাই নদীর ওপর ২০০ মিটার লম্বা ব্রিজ নির্মিত হয়। গত মঙ্গলবার গভীর রাতে ব্রিজের ২টি স্প্যানের একটি পিলার বন্যার পানির প্রবল স্রোতে বিলীন হয়ে যায়।

এছাড়া বৃহস্পতিবার (২৩ জুলাই) দুপুরে আরেকটি স্প্যানের পিলার ভেঙে যায়। এতে উপজেলার সাথে কামরাবাদ ইউনিয়নের বড়বাড়ীয়া বীর বরবাড়ীয়া, হেলেঞ্চাবাড়ী, স্বাধীনাবাড়ী, ডিগ্রি পাচবাড়ী, সাতপোয়া ইউনিয়নের চর রৌহা, চর নান্দিনা, চুনিয়াপটল, চর ছাতারিয়া, আদ্রা, শুয়াকৈরসহ পার্শ্ববর্তী মাদারগঞ্জ উপজেলার সিধুলী ইউনিয়নের চর লোটাবর, শ্যামগঞ্জ কালীবাড়ী, সর্দারবাড়ী, রায়ের ছড়া, বয়ড়া চরের সাথে যাতায়াত বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। যার ফলে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে ২৫টি গ্রামের আড়াই লাখ মানুষের।

কামরাবাদ ইউনিয়নের বড়বাড়ীয়া বীর গ্রামের আলামিন মিয়া বলেন, ‘আমরা এই ব্রিজের উপর দিয়ে চলাফেরা করতাম। ব্রিজটি ভেঙে যাওয়ার ফলে চলাফেরা বন্ধ হয়ে গেছে।’

ওই এলাকার একাধিক ব্যক্তি বলেন, ব্রিজটি ভাঙায় আমাদের ওই পাড়ে যাইতে খুব সমস্যা হচ্ছে।

এ ব্যাপারে সরিষাবাড়ী উপজেলা প্রকৌশলী রাকিব হাসান বলেন, ‘স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্তে এক্সপার্ট এসে ব্রিজটি পূর্ণ মেরামত সম্ভব কিনা তা যাচাই করা হবে। পরীক্ষান্তে ব্রিজটি পূর্ণ মেরামত করা না গেলে দ্রুত সময়ের মধ্যে নতুন ভাবে নির্মাণ করা হবে।’

বৃহস্পতিবার স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর জামালপুরের নির্বাহী প্রকৌশলী মোখলেছুর রহমান বলেন, ‘ ব্রিজটি পরিদর্শন করেছি। বন্যার পানি কমলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আবহাওয়া

%d bloggers like this:
%d bloggers like this: