মঙ্গলবার, ১৬ অগাস্ট ২০২২, ০৭:৩২ অপরাহ্ন

চলতি মাসের দ্বিতীয়ার্ধে দেশে বন্যার পূর্বাভাস

রিপোর্টারের নাম
আপডেট : শুক্রবার, ৫ আগস্ট, ২০২২
চলতি মাসের দ্বিতীয়ার্ধে দেশে বন্যার পূর্বাভাস

চলতি আগস্টের দ্বিতীয়ার্ধে দেশের উত্তরাঞ্চল, উত্তর-পূর্বাঞ্চল ও দক্ষিণ- পূর্বাঞ্চলে মৌসুমী ভারী বৃষ্টিপাত হতে পারে। এ কারণে এসব অঞ্চলের কিছু স্থানে স্বল্প থেকে মধ্য মেয়াদী বন্যা দেখা দিতে পারে। শুক্রবার (৫ আগস্ট) আবহাওয়া অধিদপ্তরের মাসিক পূর্বাভাসে এমন তথ্য জানানো হয়েছে।

চলতি মাসে বঙ্গোপসাগরে এক থেকে দুটি বর্ষাকালীন লঘুচাপ সৃষ্টি হতে পারে। যার মধ্যে একটি মৌসুমী নিম্নচাপে পরিণত হতে পারে। এ মাসে দেশের উত্তর ও মধ্যাঞ্চলে এক থেকে দুই দিন বিজলি চমকানোসহ মাঝারি ধরনের বজ্রঝড় এবং সারাদেশে তিন থেকে চার দিন বিজলি চমকানোসহ হালকা বজ্রঝড় হতে পারে।

এছাড়া চলমান মাসে দেশে বিচ্ছিন্নভাবে মৃদু (৩৬ থেকে ৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস) তাপপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে। দিন ও রাতের তাপমাত্রা স্বাভাবিক অপেক্ষা কিছুটা বেশি থাকতে পারে।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, গত জুলাইয়ের মতো আগস্টেও স্বাভাবিকের চেয়ে কম বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। এসময়ে মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যাওয়ার পাশাপাশি দিন ও রাতের তাপমাত্রাও স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি থাকতে পারে। চলতি মাসে সবচেয়ে বেশি বৃষ্টি হতে পারে সিলেটে, তারপরই চট্টগ্রামে।

তবে সেপ্টেম্বরে বাংলাদেশে স্বাভাবিক বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা আছে। আগামী মাসে বঙ্গোপসাগরে এক থেকে দুটি মৌসুমী নিম্নচাপ সৃষ্টি হতে পারে।

গত জুলাইয়ে সারাদেশে স্বাভাবিক অপেক্ষা কম বৃষ্টিপাত হয়েছে। তবে সিলেট বিভাগে স্বাভাবিক বৃষ্টিপাত হয়েছে। সক্রিয় মৌসুমী বায়ুর প্রভাবে ১ জুলাই, ১৯ থেকে ২০ জুলাই, ২৩ থেকে ২৫ জুলাই এবং ৩০ থেকে ৩১ জুলাই দেশের অনেক স্থানে হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টিপাত হয়।

গত মাসে সিলেট, ময়মনসিংহ, রংপুর, রাজশাহী ও চট্টগ্রাম বিভাগের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে অতিভারী বর্ষণ হয়। সিলেটে ১৬ জুলাই সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত ১৬৩ মিলিমিটার রেকর্ড করা হয়।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানায়, মৌসুমী বায়ু দুর্বল থাকায় পশ্চিমা লঘুচাপের সঙ্গে পূবালী বায়ুপ্রবাহের সংযোগ ঘটায় ২২ থেকে ২৪ জুলাই এবং ৩০ থেকে ৩১ জুলাই সারাদেশে বিচ্ছিন্নভাবে প্রবল বজ্রপাত ও বিজলি চমকানো বা অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টিপাত হয়েছে।

বায়ুমণ্ডলে পর্যাপ্ত জলীয় বাস্পের উপস্থিতি, প্রখর সূর্যকিরণ এবং সর্বোপরি মৌসুমী বায়ু দুর্বল থাকার কারণে ৫ জুলাই, ৭ থেকে ২১ জুলাই, ২৩ ও ২৯ জুলাই রাজশাহী, রংপুর, ঢাকা, সিলেট বিভাগ এবং কুমিল্লা ও নোয়াখালী অঞ্চলে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের তাপপ্রবাহ বয়ে যায়।

এসময় রাজশাহী (১৩ জুলাই) ও সৈয়দপুরে (১৪ জুলাই) সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়।

গত মাসে দেশের সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা স্বাভাবিক অপেক্ষা যথাক্রমে ২ দশমিক ৬০ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং ০ দশমিক ৯০ ডিগ্রি সেলসিয়াস বেশি ছিল।

গত জুলাইয়ের শুরুতে আবহাওয়া অধিদপ্তর জানায়, ওই মাসে বৃষ্টি স্বাভাবিকের চেয়ে অপেক্ষাকৃত কম হতে পারে। বৃষ্টি কমই হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে আবহাওয়াবিদেরা বলেন, অবস্থা ছিল অস্বাভাবিক। জুলাইয়ে স্বাভাবিকের চেয়ে প্রায় ৫৮ ভাগ কম বৃষ্টিপাত হয়েছে।

গত জুলাইয়ে স্বাভাবিকের চেয়ে সবচেয়ে কম বৃষ্টি হয়েছে চট্টগগ্রাম বিভাগে। এ হার ছিল প্রায় ৬৮ শতাংশ। কম বৃষ্টি হওয়ার দিক থেকে এরপর আছে বরিশাল বিভাগে। এ হার ৬৪ দশমিক ৭। গত মাসে দেশের আট বিভাগের মধ্যে স্বাভাবিক বৃষ্টি হয়েছে শুধু সিলেট বিভাগে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আবহাওয়া

%d bloggers like this:
%d bloggers like this: