বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ০৪:২৮ পূর্বাহ্ন

ঘিওরে সড়ক ভাঙনে ঝুঁকিতে সেতু

নিজস্ব প্রতিবেদক
আপডেট : সোমবার, ৩ জুলাই, ২০২৩
ঘিওরে সড়ক ভাঙনে ঝুঁকিতে সেতু

নিজস্ব প্রতিবেদক : 

মানিকগঞ্জের ঘিওর উপজেলার পেঁচারকান্দা হাটের পাশে ধলেশ্বরী নদীর ওপর নির্মিত সেতুর এপ্রোচ সড়ক দীর্ঘদিন যাবত ভাঙন ঝুঁকিতে রয়েছে। এ ভাঙন প্রতিরোধে গতবছর উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে অস্থায়ী পদক্ষেপ নেয়া হলেও আজ পর্যন্ত কোনো স্থায়ী সমাধান হয়নি বলে অভিযোগ স্থানীয়দের।

সরেজমিনে জানা যায়, ২০০৮ সালে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের অধীনে উপজেলার পেঁচারকান্দা হাট সংলগ্ন ধলেশ্বরী নদীর ওপর ১০০ দশমিক ১০ মিটার দীর্ঘ ব্রিজটি ১ কোটি ৯৫ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মাণ করা হয়। এই ব্রিজের উত্তর পাশের এপ্রোচ সড়কটি ভাঙন ঝুঁকিতে রয়েছে।

বালিয়াখোড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি গোলাপ খান এবং সাধারণ সম্পাদক ফারুক মিয়া জানান, পেঁচারকান্দার এই ব্রিজটি অতি জনগুরুত্বপূর্ণ। উপজেলার প্রায় ত্রিশ গ্রামের মানুষ পায়ে হেঁটে ও ছোট যানবাহনে এই ব্রিজটি প্রতিনিয়ত ব্যবহার করে। নদীর স্রোত ও অতি বৃষ্টির কারণে ব্রীজের উত্তর দিকের এপ্রোচ রাস্তা বেশ কয়েকবছর যাবত ভাঙনের শিকার হচ্ছে। মাটির বস্তা ফেলে এ ভাঙন সাময়িক রোধ করা হয়েছিল। চলতি বছর পুনরায় ভাঙন শুরু হয়েছে। এর স্থায়ী সমাধানকল্পে আমরা অতিদ্রুত সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করবো।

বালিয়াখোড়া ইউপি চেয়ারম্যান আওয়াল খান বলেন, গত ২ বছর আগে বাঁশের খুটি আর মাটির বস্তা দিয়ে সাময়িক এ ভাঙন রোধ করেছিলাম। এ বছর আবার ভাঙন শুরু হয়েছে। এ বিষয়টি নিয়ে আমাদের ইউনিয়নের দায়িত্বপ্রাপ্ত সহকারি প্রকৌশলী মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ সাহেবের সাথে কথা বলেছি। দ্রুত সমস্যা সমাধান হবে বলে তিনি জানিয়েছেন।

ঘিওর উপজেলা প্রকৌশলী আশরাফ উদ্দিন ভূঁইয়া জানান, এই ব্রিজকে আরো ২৫ মিটার বর্ধিত করা হবে। এতে প্রাক্কলন ব্যয় হবে প্রায় ৩ কোটি টাকা। সকল প্রক্রিয়া প্রায় শেষের দিকে। সেতু বর্ধিত করা হলে এপ্রোচ রোড ভাঙনের কোন শঙ্কা থাকবে না।

ঘিওর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. হামিদুর রহমান জানান, এ ভাঙনরোধে ব্রিজ এক্সটেনশনের জন্য সংশ্লিষ্ট দপ্তরে প্রস্তাবনা পাঠানো হয়েছে। অতিদ্রুতই এ সমস্যার সমাধান হবে।

জেলা নির্বাহী প্রকৌশলী ফয়জুল হক জানান, চলতি মাসেই ২৫ মিটার দৈর্ঘ্যরে ব্রিজ এক্সটেনশনের জন্য টেন্ডার দেয়া হবে। টেন্ডার প্রক্রিয়া শেষ হলেই নতুন ব্রিজের কাজ শুরু হবে। তখন এপ্রোচ সড়ক ভাঙনের আর কোন সম্ভাবনা থাকবে না।

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আবহাওয়া