মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১০:৩২ অপরাহ্ন

এমপি-মন্ত্রী যেই হোক, উপজেলা নির্বাচনে হস্তক্ষেপ সহ্য করা হবে না : কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক
আপডেট : শনিবার, ৩০ মার্চ, ২০২৪
এমপি-মন্ত্রী যেই হোক, উপজেলা নির্বাচনে হস্তক্ষেপ সহ্য করা হবে না : কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক : 

উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে এমপি-মন্ত্রী যেই হোক, কারও হস্তক্ষেপ কোনোভাবেই সহ্য করা হবে না বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

শনিবার (৩০ মার্চ) বেলা ১১টার দিকে বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় এ হুঁশিয়ারি দেন তিনি। রংপুর বিভাগের আওয়ামী লীগ নেতাদের সঙ্গে ওই মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

তিনি বলেন, আমি এমপি, আমি নির্বাচনে প্রভাব বিস্তার করবো। আমার একজন থাকবে, তাকে জেতানোর জন্য গোটা প্রক্রিয়া বাধাপ্রাপ্ত করবো- এটা হতে পারবে না। যে যত মন্ত্রী হোক, এমপি হোক কারও প্রভাবিত হবে এবং কোনোপ্রকার হস্তক্ষেপ কেউ করবে প্রশাসনিকভাবে, ক্ষমতার জোরে- এটা কোনো অবস্থায় অ্যালাউ করা যাবে না।

ওবায়দুল কাদের বলেন, সাংগঠনিক প্রক্রিয়ায় যেসব দেয়াল আছে সেসব ভেঙে দিতে হবে। উপজেলা নির্বাচন উন্মুক্ত করে দিয়ে দল দেখতে চায় কতটুকু প্রতিদ্বন্দ্বিতা হয়। কোনো মন্ত্রী এমপির অন্যায্য প্রভাব বরদাশত করা হবে না। নির্বাচন সম্পূর্ণভাবে সুষ্ঠু নির্বাচন দেখতে চায় দল। কোন বাধা মেনে নেওয়া হবে না।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, জাতীয় নির্বাচনের মধ্য দিয়ে নির্বাচন নিয়ে মানুষের ভয় কেটে গেছে। বিএনপি কী বলল না বলল এটা বিচার করে দেশের রাজনীতি চলবে না। তারা নির্বাচনে না গেলেও ৪২ শতাংশ মানুষ ভোট দিয়েছে। বিদেশিরাও এ বাস্তবতা বুঝতে পেরে সরকারের সঙ্গে সহযোগিতা করছে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আগে ইউনিয়ন পর্যায়েও আমরা নৌকা দিয়েছি। কিন্তু এবার আমাদের নেত্রী এটা (দলীয় প্রার্থী দেয়া) উন্মুক্ত করে দিয়েছেন। আমরা দেখতে চাই- এর মধ্যদিয়ে নির্বাচনটা কতটা প্রতিযোগিতামূলক ও প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক হয়। কতটা ফ্রি অ্যান্ড ফেয়ার কম্পিটিশন হয়।

তিনি বলেন, যে উদ্দেশ্যে এই ইলেকশন উম্মুক্ত করা হয়েছে সে উদ্দেশ্য ব্যহত করা যাবে না। প্রতিযোগিতা যারা করতে চায় করুক। ইলেকশন সম্পূর্ণভাবে ফ্রি এন্ড ফেয়ার করতে চাই উপজেলায়। জাতীয় নির্বাচন নিয়ে অনেকে অনেক কথা বলে। নির্বাচন শেষে, নির্বাচনের আগের আশঙ্কা-আতংক ছিল তা নির্বাচিনের মধ্য দিয়ে কেটে গেছে। সারা বিশ্ব নির্বাচন প্রত্যক্ষ করেছে। ৮১টি দেশ শেখ হাসিনা কে অভিনন্দন জানিয়েছেন। তার সাথে ৩২টি সংস্থা অভিনন্দন জানিয়েছে। বাংলাদেশের সাথে কাজ করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেছে।

সংগঠন যখন আছে সমস্যাও থাকবে উল্লেখ করে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, আওয়ামী লীগ বড় দল, বড় দলে কখনো কখনো কিছু সমস্যা সাংগঠনিক কার্যক্রম চালিয়ে নিতে বাধাগ্রস্ত করে। আমরা এবার প্রথম থেকেই আটঘাট বেধে নামতে চাই। নির্বাচনের পর থেকেই সাংগঠনিক কার্যক্রমে আমরা নজর দিয়েছি। কিছু কিছু জেলায় সমস্যার ব্যাপারে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নিয়েছি। যার যেমন খুশি যখন তখন দায়িত্বজ্ঞা হীন বক্তব্য রাখবেন সেটার দায়িত্ব দল গ্রহণ করবে না। একটা দুইটা বক্তব্য পুরো দলের শৃঙ্খলার উপর আঘাত হানে। তাতে অবশ্যই ব্যবস্থা নিতে হবে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আরও বলেন, জনগণের সাথে সেতুবন্ধন তৈরি করতে হবে। জেলার সাথে উপজেলা, উপজেলার সাথে ইউনিয়ন এর মাঝে সাংগঠনিক সেতু তৈরি করতে হবে। আমাদের যেখানে সাংগঠনিক প্রক্রিয়ায় দেয়াল আছে তা ভেঙ্গে দিতে হবে।

এদিকে আওয়ামী লীগকে সরকার থেকে নামাতে ভারতীয় পণ্য বর্জনে যখন বিএনপি বিভক্তি চরমে, ঠিক সেই সময় দেশবাসীকে ভারত সফর বন্ধেরও আহবান জানিয়েছেন দলটি। বিএনপি মনে করে, বাংলাদেশের মানুষ যদি শুধু ভারতে যাওয়া বন্ধ করে দেয় এবং তাতে যে ক্ষতি হবে, তখন ভারত সরকারই বাংলাদেশের ক্ষমতা থেকে আওয়ামী লীগকে সরে যেতে বলবে।

সম্প্রতি বিএনপির এমন কর্মকাণ্ড প্রসঙ্গে কাদের বলেন, বিএনপি কী বললো তা বিচার করে রাজনীতি চলবে না। তাদের রাজনৈতিক শক্তি কমে গেছে বলে মুখের বিষ উগ্র হয়েছে।

জনগণকে মিথ্যা আর অপপ্রচারে বিভ্রান্ত না হওয়ার আহবান জানিয়ে তিনি বলেন, সবকিছু হারিয়ে বিএনপি এখন আবার ভারত বিরোধিতায় নেমেছে। এতো বিভ্রান্ত হওয়া যাবে না, তাদের আর কিছু করার ক্ষমতা নেই।

শেখ হাসিনার অন্তর্ভুক্তিমূলক উন্নয়ন বিএনপির রাজনীতিকে অন্ধকারে ঠেলে দিয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, মিথ্যাকে আশ্রয় করে রাজনীতি করলে তা টেকসই হয়না।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য শাজাহান খানের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ, অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী, নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, আসাদুজ্জামান নূর এমপি।

আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও রংপুর বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা সুজিত রায় নন্দী সভার সঞ্চালনা করেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আবহাওয়া