শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ০২:৩৮ অপরাহ্ন

ইউরো দিয়েই ফ্রান্সকে বিদায় জানাবেন জিরু

স্পোর্টস ডেস্ক
আপডেট : শুক্রবার, ২৪ মে, ২০২৪
ইউরো দিয়েই ফ্রান্সকে বিদায় জানাবেন জিরু

স্পোর্টস ডেস্ক : 

ক্লাব ফুটবলে সম্প্রতি নতুন অধ্যায় শুরু করেছেন অলিভিয়ে জিরু। তবে জাতীয় দলে তিনি দেখছেন পথের সমাপ্তি। এবারের ইউরো দিয়েই আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে বিদায় নেবেন ৩৭ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড।

ফ্রান্সের হয়ে প্রায় ১৩ বছরের ক্যারিয়ারে ১৩১টি ম্যাচ খেলেছেন জিরু। গোল করেছেন ৫৭টি। আন্তর্জাতিক ফুটবলে ফ্রান্সের সর্বোচ্চ গোল স্কোরার তিনিই।

ইউরোপিয়ান ফুটবলের দীর্ঘ পাট চুকিয়ে সম্প্রতি এসি মিলান ছেড়ে যুক্তরাষ্ট্রের মেজর লিগ সকারে পাড়ি জমিয়েছেন জিরু। ক্লাব ফুটবলে এখনও বছর দুয়েক খেলা চালিয়ে যেতে পারবেন বলেই বিশ্বাস তার। কিন্তু জাতীয় দলে আর থাকতে চান না, জানিয়েছেন তিনি ফরাসি ক্রীড়া দৈনিক লেকিপকে।

তিনি বলেন, সত্যি বলতে, ফ্রান্সের হয়ে আমার শেষ টুর্নামেন্ট হবে এটিই। অবশ্যই অনেক মিস করব আমি তবে ইউরোর পর ফ্রান্সদলে আমার পালা শেষ। তরুণদের জন্য পথ তৈরি করে দিতে হবে আমাদের। বাড়তি একটি মৌসুম যেন নিজেকে টেনে না নেই, সেদিকেও সতর্ক থাকতে হবে। সঠিক সমন্বয়টা করতে হবে। সবসময়ই বলে এসেছি, নিজের শরীর যখন বলবে, তখনই অবসর নেব। আমার ধারণা, এখনও অন্তত দুই বছর ভালোভাবেই খেলতে পারব। তবে ফ্রান্স দলে আমার শেষ এই আসর দিয়েই।

ফ্রান্সের ২০১৮ বিশ্বকাপজয়ী দলের অংশ ছিলেন তিনি। তবে ইউরো জয়ের স্বাদ এখনও পাননি। ফ্রান্স মহাদেশের সেরা সবশেষ হয়েছে সেই ২০০০ সালে।

ক্লাব ফুটবলে তিনি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ও ইউরোপা লিগ জিতেছেন চেলসির হয়ে, ইংলিশ ফুটবলে জিতেছেন আরও বেশ কিছু শিরোপা, সেরি আ জিতেছেন এসি মিলানের হয়ে, মোঁপিলিয়ের হয়ে জিতেছেন ফরাসি লিগ। তবে আর্সেনাল ও চেলসি মিলিয়ে ৯ বছর খেলেও ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা জিততে পারেননি তিনি।

শেষ বেলায় তার চাওয়া, ইউরো জিতে পূর্ণতার স্বাদ পাওয়া। ব্যক্তিগত একটি লক্ষ্যও তার আছে।

তিনি বলেন, এই প্রজন্মের ফুটবলারকে সঙ্গী করে এই টুর্নামেন্টে যত দূর যাওয়া সম্ভব, ততটা যাওয়ার ইচ্ছে তো আছেই। এটাই আমাকে তাড়না জোগায়। প্রিমিয়ার লিগ জেতাটা খুবই কঠিন। ইউরো জিততে পারলে বলতে পারবৃ সবকিছুই জিতেছি। এছাড়া ৬০ গোলের মাইলফলক নিয়ে অনেক আলোচনাও শুনেছি। সবগুলোইচেষ্টা করব। তবে এমন নয় যে, এসব করতে মরিয়া হয়ে আছি।

গত ইউরোতে শেষ ষোলো থেকেই সুইজারল্যান্ডের কাছে হেরে বিদায় নিয়েছিল ফ্রান্স। এবার তাদের গ্রুপ প্রতিপক্ষ অস্ট্রিয়া, নেদারল্যান্ডস ও পোল্যান্ড।

ফ্রান্সের হয়ে সর্বোচ্চ গোল তার। ১৩১ ম্যাচ খেলে ৫৭ গোল করেছেন জিরু। গেল বিশ্বকাপে থিয়েরি অঁরির ৫১ গোলের রেকর্ডকে দুইয়ে ঠেলে এই রেকর্ড গড়েন তিনি।

যদিও ২০১৮ সালে ফ্রান্সের বিশ্বকাপ অভিযানে ৪৬৫ মিনিট খেলে কোনো গোল না করে আলোচনার খোরাক হয়েছিলেন। কাতার বিশ্বকাপে অবশ্য চারবার জাল খুঁজে পেয়েছিলেন, তবে সেবার ফাইনালে লিওনেল মেসির আর্জেন্টিনার কাছে হেরে স্বপ্নভঙ্গ হয় ফ্রান্সের।

ক্লাব ফুটবলকে অবশ্য এখনই বিদায় জানাচ্ছেন না তিনি। এসি মিলানের সঙ্গে চুক্তি শেষ তার। এরপর যুক্তরাষ্ট্রের মেজর লিগ সকার ক্লাব লস অ্যাঞ্জেলেস এফসিকে দেবেন তিনি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আবহাওয়া