শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ০৪:৪৩ পূর্বাহ্ন

আ.লীগের জাতীয় সম্মেলন ২০২৫ সালের ডিসেম্বরে : কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক
আপডেট : মঙ্গলবার, ৪ জুন, ২০২৪
আ.লীগের জাতীয় সম্মেলন ২০২৫ সালের ডিসেম্বরে : কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক : 

আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলন ২০২৫ সালের ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছেন দলটির সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

মঙ্গলবার (৪ জুন) দুপুরে তেজগাঁওয়ের ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে ঐতিহাসিক ৬ দফা দিবস এবং ২৩ শে জুন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্লাটিনাম জয়ন্তী উপলক্ষে আয়োজিত প্রতিনিধি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আওয়ামী লীগ অভ্যন্তরীণ গণতন্ত্র চর্চা করে। জন্মলগ্ন থেকেই আমাদের দলে গণতন্ত্রের চর্চা হয়। আমি তৃতীয়বারের সাধারণ সম্পাদক। আমাদের একটা সম্মেলন কেউ বলতে পারবে না সময়রেখা অতিক্রম করেছে। আমরা ডিসেম্বরের সময়সীমার মধ্যেই জাতীয় সম্মেলন সম্পন্ন করি। আগামী সম্মেলনও ২০২৫ সালের ডিসেম্বরে হবে।

ঢাকা উত্তর আওয়ামী লীগ মহানগরের বিভিন্ন কমিটি গঠনের বার্তা নিয়ে এসেছেন জানিয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, দেরিতে হলেও এই কাজটি অনেকদিন ধরে নেতাকর্মীদের আশা আকাঙক্ষার কেন্দ্রবিন্দুতে ছিলো। মহানগর দক্ষিণও আমাকে জানিয়েছে দু একদিনের মধ্যে কমিটি জমা দেবে। প্রধান প্রক্রিয়া সমাপ্তির পর্যায়ে আছে বলে জানিয়েছে। উত্তর আগেই কমিটি গঠন প্রক্রিয়া শেষ করেছে।

উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে উদ্দেশ্য করে ওবায়দুল কাদের বলেন, আপনারা এই প্রস্তাবিত কমিটি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে পৌঁছাবেন। ৭ জুন আমরা সারাদেশে ৬ দফা দিবস পালন করব। এরপরেই সবার হাতে কমিটি চলে যাবে। এ নিয়ে কেউ শোরগোল করতে পারবেন না। কোন কথা থাকলে লিখিত অভিযোগ আমাদের সভাপতির ধানমণ্ডি অফিসে জমা দেবেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আমরা পরিষ্কার বলে দিয়েছি, বেনজীর আমাদের দলের লোক নন। জ্যেষ্ঠতা ও মেধা নিয়ে তিনি আইজিপি হয়েছেন। আজিজও আমাদের দলের লোক নন। তিনি সেনাপ্রধান হয়েছেন তার যোগ্যতা ও জ্যেষ্ঠতা দিয়ে। আমরা তাদের বানাইনি। এখন ভেতরে তারা যদি কোনো অপকর্ম করে, আর এটা যখন সরকারের কাছে আসে তখন এদের বিচার করার সৎ সাহস শেখ হাসিনা সরকারের আছে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, আওয়ামী লীগ শৃঙ্খলা ভঙ্গ করে কাউকে পুলিশ, সেনাবাহিনী, র‌্যাব বা প্রশাসনের বড় পদে বসায়নি। বিএনপি আট জনকে পাশ কাটিয়ে নয় নম্বর ব্যক্তি মঈন ইউ আহমেদকে সেনাপ্রধান করেছে। বেগম খালেদা জিয়া এটা করেছেন। পুলিশের আশরাফুল হুদা, রকিবুল হুদা, এসপি কহিনুরের কথা মনে আছে? এরা কার সৃষ্টি?

তিনি বিএনপি ও দলটির নেতাকর্মীদের নিয়ে সমালোচনা করেন। বিএনপিকে দুর্নীতিবাজ বলে মন্তব্য করেন। দলটির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেককে নিয়েও সমালোচনা করেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশে, বিদেশে সর্বত্রই একজন সৎ রাজনীতিবিদ হিসেবে পরিচিত। তার সততা নিয়ে প্রশ্ন তোলার কোনো অবকাশ নেই বলেও মন্তব্য করেন ওবায়দুল কাদের।

আওয়ামী লীগ অভ্যন্তরীণ গণতন্ত্রের চর্চা করে উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, আওয়ামী লীগই একটি দল, যেটি জন্মলগ্ন থেকে দলের অভ্যন্তরে গণতন্ত্রের চর্চা করে। বিভিন্ন ইউনিট হচ্ছে আওয়ামী লীগের তৃণমূল। মহানগর হচ্ছে আওয়ামী লীগের ইঞ্জিন। তৃণমূল ঠিক না থাকলে ইঞ্জিন অচল হয়ে যায়। তৃণমূলই হচ্ছে আওয়ামী লীগের প্রাণ। এটাই হচ্ছে কর্মী সৃষ্টির কারখানা। নতুন সদস্য সংগ্রহের কারখানা।

দলের কিছু ভুল-ত্রুটি থাকে। আওয়ামী লীগ সেটি স্বীকার করে ও দলের এসব ভুল-ত্রুটি সংশোধনের সৎ সাহস রাখে বলেও মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।

আগামী ৭ জুনের পর ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ আওয়ামী লীগের বিভিন্ন কমিটি ঘোষণা করা হবে বলে জানান আওয়ামী লীগের এ জ্যেষ্ঠ নেতা। তিনি বলেন, কর্মীরা কমিটির জন্য তৃষ্ণার্ত ছিল। এই চাতক অপেক্ষার অবসান হতে যাচ্ছে। ৭ জুন ঐতিহাসিক দিনটি পালনের পর আপনারা কমিটি পাবেন। জাতীয় সম্মেলনের আগে মেয়াদোত্তীর্ণ সব কমিটির সম্মেলন করে নতুন করে করবো; দলের প্রধান এই নির্দেশ দিয়েছেন বলে জানান কাদের।

প্রতিনিধি সভায় সভাপতিত্ব করেন ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ বজলুর রহমান। সভা সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক এস এম মান্নান কচি। এ সময় উত্তর আওয়ামী লীগের বিভিন্ন স্তরের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আবহাওয়া