সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ১২:১৭ অপরাহ্ন

আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে বিদায়ের ঘোষণা মার্তার

স্পোর্টস ডেস্ক
আপডেট : শুক্রবার, ২৬ এপ্রিল, ২০২৪
আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে বিদায়ের ঘোষণা মার্তার

স্পোর্টস ডেস্ক : 

সবশেষ বিশ্বকাপে চোখের জলে বিদায় নিয়েছেন মার্তা। একটা বিশ্বকাপ জয়ের শেষ সুযোগ ছিল যে তাঁর। কিন্তু সেটা ভেস্তে যায় অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডে হওয়া বিশ্বকাপে। সেই আক্ষেপ নিয়েই এবার ফুটবলকে বিদায় জানিয়েছেন ব্রাজিল নারী ফুটবল দলের কিংবদন্তি।

দীর্ঘ ২২ বছর পথচলা অবশ্য এখনই থামছে না মার্তার। এ বছরের শেষেই বিদায় নেবেন বলে সিএনএনকে এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন ৩৮ বছর বয়সী নারী স্ট্রাইকার। আগামী জুনে শুরু হতে যাওয়া প্যারিসে অলিম্পিকে সুযোগ পেলে টুর্নামেন্টটি তাঁর ক্যারিয়ারের ষষ্ঠ আসর হবে। ক্যারিয়ারের গোধূলি লগ্নে এমন একটা মর্যাদাপূর্ণ টুর্নামেন্টে খেলার সুযোগ পাওয়াটা নিশ্চয়ই তাঁর জন্য দুর্দান্ত হবে।

নারীদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ছয়বারের ব্যালন ডি’অরজয়ী এই তারকা ফুটবলার এবার অবসর নেয়ার সময় জানিয়ে দিলেন। তার তথ্যমতে, চলতি ২০২৪ সালের শেষদিকেই ফুটবলকে বিদায় বলবেন মার্তা। সিএনএনকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এমনটাই জানিয়েছেন এই ব্রাজিলিয়ান।

মার্তা বলেন, ‘এটি আমার শেষ বছর, আমি ইতোমধ্যে এর নিশ্চয়তা দিয়েছি। এমন মুহূর্ত থাকে যখন আমরা বুঝতে পারি সেই সময় (বিদায়ের) এসে গেছে। এ নিয়ে আমি শান্ত আছি, কারণ তরুণ অ্যাথলেটদের সঙ্গে যে সম্পর্ক রয়েছে, তার মাধ্যমে ফুটবলের ব্যাপক উন্নতি হবে বলে আমি অনেক আশাবাদী।’

এই বছর শেষেই অবসরের কথা বললেও, আরও একটি অলিম্পিকে ব্রাজিলের হলুদ জার্সি গায়ে তোলার আশা করছেন মার্তা। এর আগে তিনি পাঁচটি অলিম্পিকে অংশ নিয়ে দু’বার রোপ্য পদক পেয়েছিলেন (২০০৪ এবং ২০০৮)। আবারও অলিম্পিকে খেলার স্বপ্ন নিয়ে মার্তা বলেন, ‘আমি যদি অলিম্পিকে যেতে পারি, সেখানকার প্রতিটি মুহূর্ত উপভোগ করব। কারণ সেটি অলিম্পিক হোক কিংবা অন্যকিছু, এটি ব্রাজিল জাতীয় দলে আমার শেষ বছর। ২০২৫ সালে ব্রাজিল জাতীয় দলে মার্তা বলে কোনো অ্যাথলেট থাকবে না।’

অলিম্পিকে কখনো স্বর্ণ পদক জেতা হয়নি মার্তার। ২০০৪ ও ২০০৮ অলিম্পিকে রৌপ্য পদক নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছে তাঁকে। অলিম্পিকের মতো কখনো বিশ্বকাপও জেতা হয়নি তাঁর। ছয় বার বিশ্বকাপে খেলে মাত্র একবার ফাইনালে উঠতে পেরেছিলেন তিনি। কিন্তু ২০০৭ বিশ্বকাপে জার্মানির কাছে হেরে স্বপ্নের ট্রফিতে চুমু এঁকে দেওয়ার সুযোগ পাননি।

বিশ্বকাপ না জেতার আক্ষেপ থাকলেও টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ গোলদাতা মার্তাই। নারী-পুরুষ উভয় মিলিয়ে বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ডটি ব্রাজিল কিংবদন্তির দখলে। ২৩ ম্যাচে ১৭ গোল করেছেন মার্তা। আর ব্রাজিলের হয়ে ২০০২ সালে ক্যারিয়ার শুরু করা মার্তা ১৭৫ ম্যাচে করেছেন ১১৬ গোল। ছয়-ছয়বার তিনি জিতেছেন ব্যালন ডি’অর। তবে আফসোস একটাই, কখনো মেজর কোনো শিরোপা জিততে পারেননি ক্যারিয়ারে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আবহাওয়া