শুক্রবার, ২৬ জুলাই ২০২৪, ১২:৫৩ পূর্বাহ্ন

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে হার দিয়ে সিরিজ শুরু বাংলাদেশের নারীদের

স্পোর্টস ডেস্ক
আপডেট : বৃহস্পতিবার, ২১ মার্চ, ২০২৪
অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে হার দিয়ে সিরিজ শুরু বাংলাদেশের নারীদের

স্পোর্টস ডেস্ক : 

অস্ট্রেলিয়ার শুরুটা খারাপ হলেও শেষদিকে অ্যানাবেল সাদারল্যান্ড ও অ্যালানা কিং নৈপুণ্যে দুইশ ছাড়ানো সংগ্রহ পায়। জবাব দিতে নেমে ব্যাট হাতে বেশি কিছু করতে পারলেন না বাংলাদেশের মেয়েরা। কেবল নিগার সুলতানা জ্যোতি কিছুক্ষণ লড়ে গেলেও বড় ব্যবধানে হারতে হয়েছে তাদের। তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে অস্ট্রেলিয়ার জয় ১১৮ রানে।

বৃহস্পতিবার (২১ মার্চ) মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে অস্ট্রেলিয়াকে ব্যাটিংয়ে পাঠান বাংলাদেশের অধিনায়ক নিগার সুলতানা জ্যোতি। আগে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ২১৩ রান সংগ্রহ করে অস্ট্রেলিয়ার মেয়েরা। রান তাড়ায় নেমে ৯৫ রানেই গুটিয়ে যায় বাংলাদেশের মেয়েরা।

২১৪ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে প্রথম ওভারেই উইকেট হারায় বাংলাদেশ। ইনিংসের দ্বিতীয় বলেই ফারজানা পিংকি ক্যাচ দিয়েছেন অ্যালিসা হিলিকে। মেগান শুটের ইনসুইং ঠেকাতে চেয়েছিলেন। তবে ব্যাটের বাইরের কানায় লেগে চলে যায় উইকেটের পেছনে। দুইয়ে নামা মুর্শিদা এরপর সোবহানাকে নিয়ে এগোতে চেয়েছিলেন। দলীয় ২১ রানের মাথায় আবার ছন্দপতন। অ্যালিশা গার্ডনারের বলে স্লিপে বেথ মুনিকে সহজ ক্যাচ দেন মুর্শিদা।

এর পরের জুটি ঠিক ৪৯ রানের। অধিনায়ক নিগার সুলতানা জ্যোতি আর সোবহানা খেলছিলেন দারুণ। প্রায় প্রতি ওভারেই ছিল বাউন্ডারি। সঙ্গে সিঙ্গেলসে রান এসেছে নিয়মিত। অন্তত রানতাড়া করতে নেমে খুব বেশি বিপাকে পড়ার মতো অবস্থায় ছিল না টাইগ্রেসরা। দলীয় ৭০ রানে ভাঙ্গে এই জুটি। অ্যালানা কিংয়ের দারুণ এক সুইং বলে পরাস্ত সোবহানা।

ফাহিমা এসে এরপর টিকতে পারেননি। অহেতুক রান নেওয়ার চেষ্টায় হয়েছেন রানআউট। একই অবস্থা রিতুমনির বেলায়ও। কুইক সিংগেল নিতে গিয়ে উইকেটই খুইয়ে এসেছেন তিনি। এক ইনিংসে তৃতীয় রান আউটের শিকার হন জ্যোতি। ভালো ছন্দে ছিলেন, দলের আশা ভরসাও নির্ভর করছিল তার ওপরই। আগের দুই ব্যাটারের মতো রানআউটের ফাঁদে পড়েন টাইগ্রেস কাপ্তানও। তিন ব্যাটারের পরপর ‘দৃষ্টিকটু’ রানআউটে ম্যাচ তখনই শেষ হয়ে যায়। পরের ব্যাটাররা ছিলেন আসা-যাওয়ার মিছিলে।

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে সর্বোচ্চ তিন উইকেট শিকার করেছেন অ্যাশলি গার্ডনার। এ ছাড়া দুটি উইকেট পেয়েছেন কিম গ্রাথ।

এর আগে টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে মিরপুরের স্পিনিং আর স্লো উইকেটে শুরুটা ভালো ছিল না অস্ট্রেলিয়ার মেয়েদেরও। অ্যালিসা হিলি, ফোবে লিচফিল্ড, বেথ মুনি কিংবা তাহলিয়া ম্যাকগ্রাদের কেউই নিজেদের চেনাতে পারেননি।

অবশ্য পরে ঠিকই ঘুরে দাঁড়ায় অজি মেয়েরা। অ্যানাবেল সাদারল্যান্ডের অপরাজিত ৭৬ বলে ৫৮ আর অ্যালানা কিংয়ের চল্লিশ পেরোনো ইনিংসের সঙ্গে অ্যাশলি গার্ডনারের ৩২ রানে ভর করে কন্ডিশন অনুযায়ী ২১৩ রানের চ্যালেঞ্জিং সংগ্রহ পায় সফরকারীরা।

হারের ম্যাচেও বাংলাদেশের প্রাপ্তি হতে পারে নাহিদা আক্তারের বোলিং। দুই উইকেট শিকার করে নিজের নাম রেকর্ডবুকে তুলেছেন টাইগ্রেস স্পিনার।

নভেম্বর মাসেই আইসিসির মাসসেরা ক্রিকেটারের খেতাব পাওয়া নাহিদা এই ম্যাচে নেমেছিলেন ৫১ উইকেট নিয়ে। তাহলিয়া ম্যাকগ্রা আর অ্যাশলি গার্ডনারের উইকেট পেয়েছেন আজ। তাতেই গড়েছেন রেকর্ড। নারী ক্রিকেটে বাংলাদেশের জার্সিতে ওয়ানডে ফরম্যাটে সবচেয়ে বেশি উইকেট এখন নাহিদার। পেছনে ফেলেছেন সাবেক অধিনায়ক সালমা খাতুনকে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আবহাওয়া